মেইন ম্যেনু

পরকীয়া সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসার সহজ ৬ উপায়

ইদানীং পরকীয়া সম্পর্কটা বেড়ে গেছে। সম্পর্ক একবার হয়ে গেলে এ থেকে বেরিয়ে আসা কঠিন। তবে যেকোনো সম্পর্ক শেষ করার সবচেয়ে ভালো উপায় সামনা সামনি সরাসরি জানানো।

যদি সামনা-সামনি জানাতে না পারেন তাহলে ফোনে, ই-মেল লিখে সহজভাবে, বিনীতভাবে জানান।
পালিয়ে গিয়ে সম্পর্ক শেষ করতে গেলে হীতে বিপরীত হতে পারে। তবে এ বিষয়ে আছে ৬ উপায়, যা সহজেই সম্পর্ক থেকে সরে আসতে পারবেন।

পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন? অপরাধ বোধেও ভুগছেন, কিন্তু বেরিয়ে আসার কথা ভাবলেই মনে হচ্ছে ফেলে আসা জীবনের কথা। বারবার ভেবেছেন এবার ভেঙেই ফেলবেন সম্পর্ক, কিন্তু আসল সময় এলেই জানাতে গিয়ে পিছিয়ে আসছেন? ক্রমশ জটিল হচ্ছে পরিস্থিতি? জেনে নিন এমনটা হলে কী করবেন-

সিদ্ধান্ত: পরকীয়া ভেঙে বেরিয়ে আসতে হলে সবচেয়ে আগে আপনাকে দৃঢ় সিদ্ধান্ত নিতে হবে, যা করছেন তা শুধু আপনার বিয়ে ভাঙতে পারে। তা-ই নয়, আপনার স্বামী বা স্ত্রীর বিশ্বাসভঙ্গ করছেন।
যে আঘাত অত্যন্ত গুরুতর হয়ে আপনার কাছে ফিরে আসতে পারে।

সরাসরি : যেকোনো সম্পর্ক শেষ করার সবচেয়ে ভালো উপায় সামনা-সামনি সরাসরি জানানো। যদি সামনা-সামনি জানাতে না পারেন তাহলে ফোনে, ই-মেল লিখে সহজভাবে, বিনীতভাবে জানান।
পালিয়ে গিয়ে সম্পর্ক শেষ করতে গেলে হীতে বিপরীত ফল হতে পারে।

সময় : যদি সত্যিই সম্পর্ক শেষ করতে চান তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তা করুন। চাচ্ছেন অথচ বারবার ফিরে এসে সময় নষ্ট করছেন এমনটা হলে কিন্তু পরিস্থিতি আরো জটিল হবে। দেরি না করে তাই আপনার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিন।

যোগাযোগ : সম্পর্ক শেষ করলেন অথচ তাও যোগাযোগ রেখে গেলেন এমনটা যেন না হয়। সম্পূর্ণ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করুন। যোগাযোগ রেখে শুধু শুধু একটা সম্পর্ককে টেনে নিয়ে যাবেন না।

সাহায্য : যদি নিজের চেষ্টায় সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে না পারেন তাহলে থেরাপিস্টের সাহায্য নিন। অনেক সময়ই আবেগের বশে আমরা যুক্তি দিয়ে ভাবতে পারি না। সেই কারণেই এমন কারো সাহায্যের প্রয়োজন হয় যিনি ব্যাপারটা পেশাগতভাবে দেখবেন।

বিবাহিত জীবন : নিজের বিবাহিত জীবনে মন দিন। আপনার স্বামী বা স্ত্রীর আপনার জন্য কী করেছেন ভাবুন। পরিবারে নিজের গুরুত্ব বোঝার চেষ্টা করুন। নতুন দায়িত্ব নিন।

এভাবে পরকীয়া সম্পর্ক কাটিয়ে ওঠা অনেকটাই সহজ হবে।