মেইন ম্যেনু

পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতেই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা

বিপথগামী সেনারা নয়, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে যারা পাক শক্তির পক্ষে ছিলেন, তারাই পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যা করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

বিজয় দিবস উপলক্ষে রোববার বিকেলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমন মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে কিছু বিপথগামী সৈনিক হত্যা করেছিল বলে যে প্রচার চালানো হয় তা মোটেই ঠিক নয়। এটা অপপ্রচার। পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতেই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল।’

আলোচনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘নতুন প্রজন্মকে বিশ্বমানের শিক্ষার পাশাপাশি নৈতিক মূল্যবোধ, সততা, নিষ্ঠা দিয়ে গড়ে তুলতে হবে। নতুন প্রজন্মকে গড়ে তোলার অগ্রণী ভূমিকা পালনের দায়িত্ব পরিবারের।’

নতুন জাতীয় বেতনস্কেলে সিলেকশন গ্রেড ও টাইমস্কেল ব্যবস্থা বাতিল হলেও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারের শিক্ষকদের কীভাবে উচু বেতন স্তরে নিয়ে যাওয়া যায় সে বিষয়ে সরকার সচেষ্ট রয়েছে জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘পদোন্নতি বা অন্য কোন ব্যবস্থার মাধ্যমে তাদের উচু বেতন স্তরে উন্নীত করা যেতে পারে।’ এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মতো গত ১ জুলাই থেকে নতুন ঘোষিত অষ্টম বেতন কাঠামোতে একইভাবে বেতন পাবেন বলেও জানান তিনি।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মাহাপরিচালক (ডিজি) ফাহিমা খাতুন। শিক্ষাসচিব সোহরাব হোসাইনের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব অরুণা বিশ্বাস ।

অনুষ্ঠানে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের আয়োজনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করেন বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী এবং শিল্পীরা।