মেইন ম্যেনু

পরিকল্পনা সফল, এবার ড্রয়ের চ্যালেঞ্জ

শুক্রবার তৃতীয় দিন শেষে সাকিব আল হাসানকে জিজ্ঞেস করা হয়, ফতুল্লা টেস্টের ভবিষ্যৎ কী? বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার এক কথায় উত্তর দেন, ‘ড্র।’ পরিকল্পনাটাও বলে দেন সাকিব, ‘ওদের অলআউট করি কিংবা ওরা ডিক্লেয়ার করে, আমাদের তো ব্যাটিং করতেই হবে। আমরা যখন ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাব, অবশ্যই চেষ্টা থাকবে যত বেশি সম্ভব ব্যাট করা।’

তবে ভারতের ডিক্লেয়ারের অপেক্ষায় বাংলাদেশ বসে থাকবে না বলে জানিয়েছেন সাকিব। তৃতীয় দিনের মতো চতুর্থ দিন বোলিং করতে পারলে দ্রুত ভারতের শেষ চার উইকেট তুলে নিতে পারবেন বলে বিশ্বাস সাকিবের।

এক প্রশ্নের জবাবে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘প্রথম দিন আমাদের বোলিং ভালো হয়নি। তখন টেস্ট দলও মনে হয়নি। আমাদের মধ্যে ড্রেসিং রুমে এগুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আমরা ভালো জায়গায় বোলিং করার পরিকল্পনা করি। এবং শর্ট বলগুলো বেশি করতে থাকি। তাদের শট খেলিয়ে রান তোলার আমন্ত্রণ জানাতে থাকি। এই পরিকল্পনটা কাজে দিয়েছে।’

এদিকে ভারতের বোলিং আক্রমণের বিপক্ষে ব্যাটিং করাটাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন সাকিব। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের ভাষ্য, ‘ওদের দলে পাঁচজন ভালো বোলার আছে। যারা আমাদের ২০ উইকেট নিতে সক্ষম। আমাদের ব্যাটসম্যানদের একটা ভালো সুযোগ আছে এই উইকেটে ভালো খেলার। আমরা যেভাবে শেষ ছয়-আট মাস ধরে খেলছি সেভাবে খেলতে হবে। এই টেস্টে সব প্রতিকূলতা উপেক্ষা করেই আমাদের ভালো খেলতে হবে।’

তবে স্পিনারদের নিয়ে বাড়তি কোনো চিন্তা করছেন না সাকিব। ওয়ানডের সহ-অধিনায়ক মনে করেন, ‘উইকেট বেশ স্বাভাবিক। বল উঁচুনিচু হচ্ছে না। উইকেট এ রকম থাকলে আমাদের ব্যাটসম্যানরা ওদের স্পিন আক্রমণ রুখে দিতে পারবে।’