মেইন ম্যেনু

পরিচয় গোপন করতেই মাজারে থাকতেন নছর গুন্নু !

চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুহত্যার ঘটনায় গ্রপ্তার করা হয়েছে ছাত্রশিবিরের সাবেক নেতা আবু নছর গুন্নুকে (৪০)। তিনি দুই দফায় মধ্যপ্রাচ্যে ছিলেন। আবু নছর গুন্নু নিজের পরিচয় আড়াল করতেই একটি মাজারে আশ্রয় নিয়েছিলেন বলে দাবি করেছে সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) দেবদাস ভট্টাচার্য। তার দাবি, আবু নছর গুন্নুর বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় সন্ত্রাসী কর্মকণ্ডে অংশ নেয়ার তথ্য রয়েছে।

বুধবার দুপুরে সিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে দেবদাস ভট্টাচার্য এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, গ্রেপ্তার আবু নছর দুই দফায় মধ্যপ্রাচ্যে ছিল। বিভিন্ন সময় সন্ত্রাসী কাজে অংশ নেয়ার তথ্য আছে। সীতাকুণ্ড থানায় একটি অপহরণনসহ হত্যা মামলারও আসামি তিনি। শেষ দফা ৫-৬ বছর আগে বিদেশ থেকে ফিরে হাটহাজারী একটি মাজারে আড়াল নেন তিনি।

আবু নছর গুন্নু ওই মাজারের খাদেম কিনা জানতে চাইলে দেবদাস ভট্টচার্য বলেন, ঠিক খাদেম নয়, মাজারের রক্ষণাবেক্ষণে আছেন তিনি। জামায়াত-শিবির হলেও আড়াল নেয়ার জন্য আশ্রয় নিয়েছিলেন তিনি।