মেইন ম্যেনু

পরীক্ষার ফি না দেওয়ায় শ্রেণিকক্ষ থেকে ছাত্রীকে বের করে দিলেন শিক্ষক

এম.এ আয়াত উল্যা, স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী : নোয়াখালীর চাটখিলে পরীক্ষার ফি ও কম্পিউটার ফি না দেওয়ায় এক ছাত্রীকে শ্রেণিকক্ষ থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার চাটখিল সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রীর মা একই বিদ্যালয়ের আয়া কাজল রানী বলেন, পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভালো না হওয়ায় তিনি অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ের অর্ধবার্ষিক পরীক্ষার ফি ৩২৫ টাকা ও কম্পিউটার ফি ১০০ টাকা দিতে পারছিলেন না।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শিক্ষক নান্টু লাল পাল তাঁর মেয়েকে ফি’র জন্য শ্রেণিকক্ষ থেকে বের করে দেন। তখন তাঁর মেয়ে প্রধান শিক্ষকের কাছে গেলে তিনি বিদ্যালয়ের প্রধান সহকারীকে দিয়ে মেয়েটিকে শ্রেণিকক্ষে পাঠান। কিন্তু মেয়েকে শ্রেণিকক্ষে ঢুকতে দেননি। এরপর তিনি মেয়েকে নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ে গিয়ে তাঁকে বিষয়টি জানান।

শিক্ষক নান্টু লাল পাল বলেন, ‘আমি ওই ছাত্রীকে শ্রেণিকক্ষ থেকে বের করে দিইনি। ফি না দেওয়ায় তাকে প্রধান শিক্ষকের কাছে পাঠিয়েছি। পরে প্রধান শিক্ষক প্রধান সহকারীকে দিয়ে আমার কাছে ওই ছাত্রীকে পাঠালেও তিনি (প্রধান শিক্ষক) কোনো লিখিত দেননি। তাই আমি ওই ছাত্রীকে শ্রেণিকক্ষে ঢুকতে দেইনি।’

তিনি বলেন, ‘ছাত্রীর মা ইউএনওর কাছে অভিযোগ করার পর তিনি আমাকে কার্যালয়ে ডেকে ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। একপর্যায়ে তিনি আমাকে পুলিশে সোপর্দ করেন। আমাকে থানায় প্রায় আধা ঘণ্টা বসিয়ে রেখে ছেড়ে দেওয়া হয়।

প্রধান শিক্ষক নূর উদ্দিন জাহাঙ্গীর বলেন, নান্টু লাল পাল তাঁর নির্দেশনা অমান্য করে ওই ছাত্রীকে শ্রেণিকক্ষে ঢুকতে দেননি। পরে ছাত্রীর মা তাঁকে ঘটনাটি জানালে তিনি তাঁকে তাঁর মতো করে সিদ্ধান্ত নিতে বলেন। ইউএনও মোহাম্মদ আবরাউল হাছান মজুমদার বলেন, ওই শিক্ষককে ডেকে তিনি সতর্ক করে দিয়েছেন।