মেইন ম্যেনু

পরীক্ষার হলে নকল করতে গিয়ে ধরা খেয়ে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

পরীক্ষায় নকল করতে গিয়ে ধরা পড়ায় আত্মহত্যা করলেন স্নাতকস্তরের এক ছাত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার ভারতে। উত্তর দিনাজপুরের কালিয়াগঞ্জের ওই ছাত্রীর সিট পড়েছিল ইটাহারের মেঘনাদ সাহা কলেজে। পরীক্ষার হলে নকলসহ ধরা পড়ার পরপরই কলেজের শৌচাগারে গিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন।

পুলিশ জানায়, কালিয়াগঞ্জের অঙ্ক অনার্সের ওই ছাত্রীর নাম সাবিনা ইয়াসমিন (২১)। তাঁর ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা চলছিল। সিট পড়েছিল ইটাহারের মেঘনাদ সাহা কলেজে। বুধবার বিকেলে ওই কলেজের মহিলা শৌচালয় থেকে সাবিনার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করা হয়।

জানা গেছে, বুধবার পরীক্ষা চলাকালীন নকলসহ ধরা পড়ার পর, শৌচাগারে যাওয়ার নাম করে হল থেকে বেরিয়ে যান ওই ছাত্রী। কিছুক্ষণ পরই তাঁর নিথর দেহ উদ্ধার হয়। গলায় ওড়নার ফাঁস জড়িয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

উদ্ধার হওয়া সুইসাইড নোট থেকে জানা গেছে, নকলসহ ধরা পড়ায় লোকলজ্জার ভয়েই আত্মহত্যা করার সিদ্ধান্ত নেন সাবিনা।