মেইন ম্যেনু

পর্ণস্টার হওয়ায় বড় বোনকে ১৪৪ বার কুপিয়ে খুন

বড় বোন দেখতে অনেক বেশি সুন্দর! সবাই শুধু বোনের দিকেই তাকিয়ে থাকে। এমনকী, প্রেমিকও নাকি ইদানীং ঝুকছিল তার ১৭ বছরের বোনের দিকে।

বেশ কিছু দিন ধরেই মনের মধ্যে জমা হচ্ছিল প্রবল ঈর্ষা। আর সেই ঈর্ষার বশেই ১৯ বছরের দিদি কুপিয়ে কুপিয়ে নৃশংস ভাবে খুন করল পেশায় ন্যুড মডেল বোনকে। উপড়ে দিল তার চোখ, কেটে নিল কান।

নারকীয় এই ঘটনাটি ঘটেছে রাশিয়ায়। অভিযোগ, সেন্ট পিটার্সবার্গের বাসিন্দা এলিজাবেথ ডুবরোভিনা ১৪০ বার ছুরি চালিয়েছে বোন স্টেফানিয়া ডুবরোভিনার শরীরে।

পরিচিতেরা জানিয়েছেন, বহু দিন ধরেই মাদকাসক্ত এলিজাবেথ। মানসিক সমস্যার জন্য তার চিকিত্সাও চলছিল। মডেলিং-এর দুনিয়ায় ধীরে ধীরে বিখ্যাত হয়ে ওঠা স্টেফানিয়াকে ইদানীং পছন্দ করছিল না সে। বোনকে অন্ধ অনুকরণ করা শুরু করছিল।

ঘটনার দিন, সেন্ট পিটার্সবার্গে ৪৩ বছরের শোম্যান স্ট্যাস ব্যারেটস্কির বাড়িতে পার্টিতে যায় দু’বোন। শেষ রাতে ব্যারেটস্কি আরও মদ কিনতে বাইরে বেরোন। অভিযোগ, সেই ফাঁকে বোনকে আক্রমণ করে এলিজাবেথ ডুবরোভিনা।

ব্যারেটস্কি জানিয়েছেন, স্টেফানিয়া মোটেও এসকর্ট বা পর্নস্টার ছিলেন না। তিনি শুধু চেয়ে ছিলেন মডেলিং-এ তাঁর কেরিয়ার তৈরি করতে।