মেইন ম্যেনু

পর্ন দেখতে দেখতে হাসপাতালেই হস্তমৈথুন শুরু যুবকের, কিন্তু একি পরিণতি হলো…

মানসিক চাপ, টেনশন কিংবা কিছু কিছু ক্ষেত্রে খাওয়াদাওয়ার সঠিক রুটিন না থাকলে যে কোনও মুহূর্তে হার্ট অ্যাটার্ক হতে পারে। ভাগ্য ভালো থাকলে সেই যাত্রায় প্রাণে বেঁচে গেলেও কিছু কিছু ক্ষেত্রে মৃত্যুও ঘটে যেতে পারে। যেমনটা ঘটেছে এই হাসপাতাল কর্মীর সঙ্গে। কিন্তু কীভাবে হৃদরোগে তাঁর মৃত্যু হল জানলে মাথা ঘুরে যেতেই পারে। কিংবা চমকেও উঠতে পারেন… যাই হোক মূল ঘটনায় আসা যাক।

নর্থ সেন্ট্রাল ব্রঙ্কস হাসপাতালের একটি ফাঁকা ঘরে একদিন ল্যাপটপে পর্ন দেখতে ব্যস্ত ছিলেন ওই হাসপাতাল কর্মী। কিছুক্ষণের মধ্যেই চরম উত্তেজিত হয়ে ওঠেন। আর কি! নিজেকে আর ধরে রাখতে পারলেন না ওই ব্যক্তি। পর্ণ দেখতে দেখতে সেখানেই শুরু করে দিলেন হস্তমৈথুন। আর এই অবস্থায় উত্তেজনা এমন চরমে উঠে যে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শেষমেশ মৃত্যু হয় ওই হাসপাতাল কর্মীর। পরে এক সহকর্মী এসে তাঁর দেহ উদ্ধার করেন। আর সেই সময়ে ল্যাপটপে পর্ন চলতে দেখেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত ওই কর্মী তখন সম্পূর্ণ নগ্ন অবস্থায় ছিলেন। তবে পর্ন দেখতে দেখতে হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু এই প্রথম নয়। ২০০৮ সালে ইংল্যান্ডের ক্রয়ডনে পর্ন দেখতে দেখতে মৃত্যু হয় ২৩ বছর বয়সি এক যুবকের। তবে তার কয়েকদিন আগেই তাঁর ওপেন হার্ট সার্জারি হয়েছিল।