মেইন ম্যেনু

পর-পুরুষের সাথে অবৈধ সম্পর্ক: বড় বোনের স্তন কেটে নিলেন পাষণ্ড ছোট ভাই

পশ্চিমবঙ্গে পাষণ্ড ছোট ভাই বড় বোনের বুকের স্তন কেটে নিয়েছে মর্মে চাচা বাদি হয়ে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার হীরাপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। জানা যায়, মণ্ডলপাড়া গ্রামের আমির হোসেনের বড় মেয়ে মাজেদা বেগমের (৪৫) একই গ্রামের অপর এক ছেলের সাথে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে মর্মে সন্দেহ করে। ওই সন্দেহের জের ধরে গত বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ধারলো হাসুয়া দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে ও বুকের স্তন কেটে নেই। ওই ঘটনায় চাচা রজফ আলী এগিয়ে আসলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে।

এলাকার লোকজন উদ্ধার করে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চাচি তহমনিা বেগম বলেন, মাজেদা বেগম পূর্বের স্বামীকে ছেড়ে এক সপ্তাহ আগে ইমান আলী নামের এক ছেলের সাথে বিয়ে হয়েছে। বর্তমানে বাবার বাড়িতে থাকে। তার পরও ছোট ভাই খাজের আলী তাকে সন্দেহ করে। তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে সকালে তার বুকের স্তন কেটে নিয়েছে।

চাচাত ভাবী মর্জিনা বেগম বলেন, মাজেদাকে আমরা কখনো বুঝতে পারিনি সে খারাপ। কেন তাকে তার ভাই সন্দেহ করে তা আমার জানা নেই। চাচাত ভাই আজিবর বলেন, খাজের এর আগেও তার বোন কুপিয়ে জখম করেছিল। সে প্রতিনিয়ত নেশা করে ঘুরে বেড়ায়।

এব্যাপরে চাচা আমির বাদি হয়ে হীরাপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।