মেইন ম্যেনু

পাঁচতারকা হোটেল রেলের খালি জায়গায়

বাংলাদেশ রেলওয়ের যে পরিমান ভূমি অব্যবহৃত রয়েছে এবং যাতে অবৈধ স্থাপনা বা দখলদারিত্ব রয়েছে সে সব জায়গাগুলো মুক্ত করে পাঁচ তারকা হোটেল-কাম বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণ করা হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক। বর্তমানে রেলওয়ের ১২ হাজার ৯৬০ দশমিক ৪১ একর ভূমি অব্যবহৃত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

রোববার সকালে জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তরকালে মো. ইসরাফিল আলমের পক্ষে হুইপ শহিদুজ্জামান সরকার উত্থাপিত তারকা চিহ্নিত প্রশ্ন-১৯৫৪ এর জবাবে মন্ত্রী এসব কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, ‘সব ভূমিতে কিছু অবৈধ স্থাপনা রয়েছে। যা অবৈধ দখলদারদের কবলে রয়েছে। এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হচ্ছে। এসব জায়গায় পাঁচ তারকা হোটেল-কাম বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণ করা হবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘যে সব রেলভূমি অব্যবহৃত রয়েছে এবং ভবিষ্যতে রেলওয়ের সম্প্রসারণ ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে প্রয়োজন হবে না, সেসব রেলভূমিতে পিপিপি’র (পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপ) আওতায় পাঁচ তারকা হোটেল কাম বাণিজ্যিক ভবন, মোটেল, মেডিকেল কলেজ, হাসপাতাল এবং বহুতল শপিংমল ইত্যাদি নির্মাণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে।’

জানা গেছে, ইতোমধ্যে চট্টগ্রামস্থ জাকির হোসেন রোডে পিপিপি’র আওতায় ফাইভ স্টার হোটেল নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে পিপিপি থেকে ট্রানজেকশন অ্যাডভাইজার নিয়োগ করা হয়েছে। শিগগিরই বিনিয়োগকারী নিয়োগের জন্য আরএফকিউ আহ্বান করা হবে।