মেইন ম্যেনু

পাঁচ বছর ধরে মেয়েকে ধর্ষণ, তিন বার গর্ভবতী! বাবা গ্রেপ্তার

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মহারাষ্ট্রের পালঘরে। নিজের মেয়েকে ধর্ষণ, তিন তিন বার গর্ভবতী হয়ে যাওয়ার পর গর্ভপাত। পরে জন্ম হয় একটি সন্তানেরও। তরুণীটির কাছে পাঁচটি বছর ছিল ভয়াবহ দুঃসপ্নের মত। তবে পার পাননি মেয়েটির বাবা। শনিবার তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। খবর এনডিটিভির।

গত কয়েক বছর ধরে ভারতে প্রায়ই ধর্ষণের ঘটনায় তোলপাড় হচ্ছে। এবার নিজের মেয়েকে বছরের পর বছর ধর্ষণ করে যাওয়ার মত বিকৃত মানসিকতার প্রমাণ পাওয়া গেছে।

মহারাষ্ট্রের তুলিঞ্জ থানার পরিদর্শক প্রকাশ বিরাজদার জানান, ৪৭ বছর বয়সী ঐ ব্যক্তি পেশায় একজন কবিরাজ। তিনি ভেষজ ওষুধ বিক্রি করেন। ২০১১ সালে তার স্ত্রী মারা যায়। তারপর থেকেই নিয়মিত মেয়েকে ধর্ষণ করে আসছেন তিনি।

ভুক্তভোগী মেয়েটির অভিযোগ, মা মারা যাওয়ার পর থেকেই তার বাবা বহু বার তাকে যৌন নির্যাতন করে আসছেন। এই পর্যন্ত চার বার তিনি গর্ভধারণ করেছেন। এর মধ্যে তিনবার তাকে ওষুধ খাইয়ে গর্ভপাত ঘটিয়েছেন বাবা।

ওই তরুণীটি জানান, তার বাবা সম্প্রতি আরেকটি বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু পরে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।

পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত বাবাকে ধর্ষণ, গর্ভপাত ঘটানো এবং যৌন অপরাধ থেকে শিশুদের সুরক্ষা আইনের (পিওসিএসকো) লঙ্ঘনের অভিযোগে শুক্রবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।