মেইন ম্যেনু

পাঁচ স্বামীর এক স্ত্রী! শুধু ভারতেই সম্ভব

পাঁচ ভাইয়ের স্ত্রী ছিলেন দ্রৌপদী। কিন্তু সে সময়ের ব্যাপার আর আজকের এই ঘোর কলিযুগের ব্যাপার কি এক হতে পারে নাকি? যা আছে মহাভারতে, তা ঘটে চলেছে এই ভারতে। পুরো ব্যাপারটাকে এভাবে বললে ভুল হয় না নিশ্চয়ই। দ্রৌপদীর পাঁচ স্বামী ছিল এবং কীভাবে পাঁচজনকে নিয়ে তিনি দিব্য সংসার সামলাতে, তা রীতিমতো আলোচনার বিষয়। কিন্তু সে কাজ অনায়াসে সামাল দেন এই ভারতেরই একপ্রান্তের মহিলারা।

হিমালয়ের কোলে কয়েকটি পরিবার এখনও রয়ে গিয়েছে যেখানে এক স্ত্রী-র উপরে সমান অধিকার থাকে পরিবারের সব ভাইয়ের। এ নিয়ে অনেকের আপত্তি থাকলেও, যাঁরা এইভাবে সংসার চালাচ্ছেন, তাঁরা কিন্তু সুখে থাকার কথাই বলেন।

দেরাদুনের গ্রামে গেলেই পাওয়া যাবে এমন কয়েকটি পরিবারের সন্ধান। ২১ বছরের রাজ্জো ভার্মার স্বামীর সংখ্যা ৫। তাঁরা পাঁচ ভাই। একেবারে দ্রৌপদীর মতোই। প্রতিরাতেই তিনি একেকজন স্বামীর সঙ্গে কাটান। এ নিয়ে স্বামীদের মধ্যেও কোনও দ্বন্দ্ব নেই। তাঁর দেড় বছরের একটি পুত্রসন্তান রয়েছে। তবে কোন স্বামী ঐ ছেলের বাবা বা কে তার জন্মদাতা, তা রাজ্জো জানেন না।

রাজ্জো জানাচ্ছেন, তাঁর পরিবারের এই ধারা চলে আসছে। তাঁর মা-ও তিন ভাইয়ের স্ত্রী ছিলেন। পাঁচ স্বামীর মধ্যে কে তাঁর সবথেকে বেশি কাছের? রাজ্জো বলছেন, সকলেই। স্বামীরাও একবাক্যে স্বীকার করছেন, স্ত্রীকে নিয়ে তাঁরা অনেক সুখী।-এবেলা