মেইন ম্যেনু

পাউন্ডের সর্বোচ্চ দরপতন, বিশ্ব বাজারে বড় ঝাঁকুনি

বৃহস্পতিবার ঐতিহাসিক গণভোটে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ত্যাগের রায় দিয়েছে ব্রিটেনের জনগণ। কিন্তু আন্তর্জাতিক মুদ্রাবাজার ও পুঁজিবাজারে ইতিমধ্যেই এ ফলাফলের তীব্র ঝাঁকুনি শুরু হয়ে গেছে। গত ৩০ বছরের মধ্যে পাউন্ডের সর্বোচ্চ দরপতন হয়েছে। সেই সাথে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন।

২০০৮ সালের অর্থনৈতিক মন্দার পরে এই গণভোটই সবচেয়ে বড় ঝাঁকুনি দিয়েছে বিশ্ব বাজারে। একদিনের মধ্যে নাটকীয়ভাবে কমে গিয়েছে পাউন্ডের মূল্যমান। গত ৩০ বছরে এই দর নেমে গেছে সর্বনিম্ন পর্যায়ে।

ফলাফল আসার আগে পাউন্ডের মূল্য ১ দশমিক ৫০ ডলারে উঠে গেলেও ইইউ ত্যাগের পক্ষে ফলাফল আসতে শুরু করা মাত্র তা কমে ১ দশমিক ৪৩ ডলারে নেমে যায়।

লন্ডনের শেয়ার বাজারে একদিনে এই দরপতন বিরল চিত্র। পাউন্ডের মূল্য কমে গেলে স্বভাবতই বিদেশি পণ্যের মূল্য বেড়ে যাবে। এদিকে ডলারের বিপরীতে ইউরোর মূল্য কমেছে ৩ দশমিক ৩ শতাংশ, যা কি না ইউরোর ইতিহাসে প্রথম।

ব্যাংক অব ইংল্যান্ড জানিয়েছে, অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় সবধরনের পদক্ষেপ নেবে তারা। আন্তর্জাতিক বাজার স্থিতিশীল করার জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়েছে অনেকে। জাপান ঘোষণা দিয়েছে, সঙ্কট কাটাতে প্রয়োজনমত অর্থ সাহায্য করবে।