মেইন ম্যেনু

পাকা আমের যত পুষ্টিগুণ

চলছে আমের মৌসুম। স্বাদে গন্ধে ভরা এই পাকা আম সবার পছন্দের তালিকায় রয়েছে। শুধুমাত্র স্বাদেই নয় দেখতেও মনকাড়া আম বিাভন্নভাবে খাওয়া যায়। জুস থেকে শুরু করে আচার তৈরি করে খাওয়া যায়। সংরক্ষণ করে রাখা যায় বিভিন্ন উপায়ে। স্বাদ আর গন্ধেই নয়, আমে রয়েছে পুষ্টিগুণ ভরা। পাকা আমে রয়েছে প্রচুর পরিমান ভিটামিন ‘এ’। এছাড়াও শরীরের নানা উপকার করে থাকে যেমন; চোখের নানা রোগ, চুলপড়া, খসখসে চামড়া, হজমের ইত্যাদি সমস্যা দূর করে।

আমে আছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন ‘সি’ সেই সাথে আরো আছে ফাইবার যা সিরাম কোলেস্টরলের মাত্রা কমিয়ে দেয়, বিশেষ করে রক্তে উপস্থিত খারাপ কোলেস্টরল যেমন কম ঘনত্বের লাইপোপ্রটিন এর মাত্রা কমাতে সাহায্য।

ত্বকের যত্নেও অনেক উপকারি ভূমিকা পালন করে পাকা আম। ভেতর ও বাইরে থেকে উভয়ভাবেই ত্বককে সুন্দর রাখতে সাহায্য করে আম। ত্বকের লোমের গোড়া পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে আম, ফলে ব্রণের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

আমে রয়েছে টারটারিক এসিড, ম্যালিক এসিড ও সাইট্রিক এসিড যা শরীরে অ্যালকালাই বা ক্ষার ধরে রাখতে সহায়তা করে। প্রয়োজনীয় এনজাইম যা শরীরের প্রোটিন অণুগুলো ভেঙ্গে ফেলতে সাহায্য করে যা হজমশক্তি বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

আমের মধ্যে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা কিনা ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে। স্তন, লিউকেমিয়া, কোলনসহ প্রোস্টেট ক্যান্সারকেও প্রতিরোধে সহায়তা করে আম।

আম স্বাদে ভরপুর তবে খাবার সময়ে একটু সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। ছোট বাচ্চাদের দিতে হবে পরিমিত পরিমানের। এছাড়াও ডায়বেটিকস রুগীদেরও বুঝেশুনে খেতে হবে।