মেইন ম্যেনু

পাকিস্তানের প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমেই নিজামীর ফাঁসির যৌক্তিকতা প্রমাণিত

পাকিস্তানের প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমেই জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি ও বিচারের যৌক্তিকতা প্রমাণিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে হরতাল বিরোধী বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি একথা বলেন। জামায়াতের ডাকা হরতালের প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

হাছান মাহমুদ বলেন, পাকিস্তানের প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমেই নিজামীর ফাঁসি ও বিচারের যৌক্তিকতা প্রমাণিত হয়েছে। পাকিস্তান প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে যে, পাকিস্তান রাষ্ট্র রক্ষার জন্যই নিজামী পাকিস্তানের পক্ষাবলম্বন করেছিল।

সমাবেশে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, একাত্তরে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বর্বরতাকে নিজামী সবচেয়ে বেশি সহযোগিতা করেছে। যারা একাত্তর দেখেনি তারাও বুঝতে পেরেছে একাত্তরে পাক বাহিনীকে আলবদর প্রধান হিসেবে নিজামী কী ধরনের সহযোগিতা করেছে।

জামায়াত নিষিদ্ধের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা স্পষ্ট বলতে চাই, জামায়াত একটি সন্ত্রাসী দল, যুদ্ধাপরাধী দল ও জামায়াতকে নিষিদ্ধ করা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। যথা সময়ে আইনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জামায়াতকে নিষিদ্ধ করা হবে।

মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদসহ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা ছিলেন।

সমবেশে সভাপতিত্ব করেন দক্ষিণের সহসভাপতি এনামুল হক আরমান। সমাবেশ পরিচালনা করেন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা। সমাবেশে বক্তব্য দেন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ, যুগ্ম সম্পাদক মহিউদ্দিন আহম্মেদ মহি, সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য মিজানুল ইসলাম মিজু, কেন্দ্রীয় নেতা মনিরুল ইসলাম হাওলাদার প্রমুখ।