মেইন ম্যেনু

পাকিস্তান ও ভারত মিলে এবার শাসন করবে লন্ডন

এবার লন্ডনে গিয়ে মিলিয়ে গেল চিরবৈরী পাকিস্তান ও ভারতের বৈরিতা। ইতিহাস তৈরি করে ইউরোপের প্রথম মুসলিম মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাদিক খান। লন্ডন শহরের মেয়র হওয়ার পর এবার নিজের ডেপুটি মেয়র বেঁছে নিয়েছেন তিনি। আর এক্ষেত্রেও সৃষ্টি করেছেন উদাহরণ। প্রতিবেশি থাকতে তো আর দূরের লোককে নেয়া যায় না। তাই সাদিকের অনুরোধে লন্ডনের ডেপুটি মেয়র হলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত রাজেশ আগরওয়াল।

এক পাকিস্তানি আর এক ভারতীয় মিলেই এবার রাজত্ব করবে ব্রিটিশদের রাজত্বে। মেয়র ও ডেপুটি মেয়র হিসেবে পাকিস্তান ও ভারতের এই জুটি মিলেই লন্ডনের নাগরিক প্রশাসনের দায়িত্ব সামাল দেবেন।

সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত ডেপুটি মেয়র রাজেশ আগরওয়ালের আত্মীয়রা থাকেন ভারতের মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের ইন্দোরে। ৩৯ বছর বয়সী কোটিপতি এই ব্যবসায়ীর নানান ব্যবসা আছে যুক্তরাজ্যে। গত বছর তার কোম্পানির মূলধন ছিল ১.৩ কোটি পাউন্ড। লেবার পার্টির নেতা সাদিক খান ও রাজেশ আগরওয়ালের বন্ধুত্ব অনেকদিনের।

মেয়র পদে নির্বাচনের সময় সাদিক খানের ব্যবসায়িক উপদেষ্টা ছিলেন রাজেশ আগরওয়াল। তার দক্ষতার ওপর বেশ ভরসাও রেখেছিলেন সাদিক খান। বন্ধুকে ডেপুটি মেয়র করার পেছনে সাদিকের যুক্তি, অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব সামাল দেবেন রাজেশ।

ব্রেক্সিটের পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে আসার রায়ে টালমাটাল ইউরোপ। লন্ডনের ডেপুটি মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে রাজেশ আগরওয়ালের যুক্তি, মেয়র সাদিক খানের সঙ্গে উপযুক্ত পরামর্শ করে লন্ডনকে আরো বড় বাণিজ্য নগরীতে পরিণত করার চেষ্টা করবেন তিনি। কর্মসংস্থানের বিষয়ে দেয়া হবে বিশেষ গুরুত্ব।