মেইন ম্যেনু

পানামা পেপার্স: ফাঁস নয় হ্যাক করা হয়েছে

পানামা পেপার্সের ১ কোটি ১৫ লাখ গোপন তথ্য ফাঁস হয়নি বরং হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে তথ্য চুরি করা হয়েছে বলে দাবি করেছে ল’ ফার্ম মোস্যাক ফনসেকা। মঙ্গলবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে পানামাভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটির অংশীদার ও প্রতিষ্ঠাতা র‌্যামন ফনসেকা জানান, আমাদের কার্যক্রম সম্পূর্ণ বৈধ। আমরা কোনো গোপন কাজ করি না। এটা ফাঁস নয়, এটা হ্যাক। ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়ার এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

র‌্যামন ফনসেকা বলেন, কেউ হ্যাকিংয়ের বিষয়টি নিয়ে কোনো কথা বলছে না। অথচ তথ্য হ্যাক করা সবচেয়ে বড় অপরাধ। এটা নিয়ে কেউ মাথা ঘামাচ্ছে না। অফশোর কোম্পানি ব্যবস্থাপনায় খ্যাতনামা মোস্যাক ফনসেকা কোনো আইন ভঙ্গ করেনি। একমাত্র যে অপরাধটি চিহ্নিত করা গেছে তা হলো হ্যাক। কেউ এটার কথা বলছে না। অথচ এটাই চরম সত্যি।

এ ঘটনায় এরই মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীদের নিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান ৬৩ বছর বয়সী র‌্যামন। তিনি বলেন, আমরা এরই মধ্যে এ ঘটনায় অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিসে একটি অভিযোগ দায়ের করেছি। সরকারি একটি সংস্থাও এটি নিয়ে কাজ শুরু করেছে। ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস ও অন্যান্য গণমাধ্যমে যেসব তথ্য প্রকাশিত হয়েছে সেগুলোকে প্রসঙ্গের বাইরে এবং ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে বলেও দাবি তার। আমাদের মতবাদ আছে এবং আমরা সেই অনুযায়ী চলি। তিনি দৃঢকণ্ঠে বলেন, আমি নিশ্চয়তা দিচ্ছি এ ঘটনায় আমরা কোনোভাবেই দোষী সাব্যস্ত হব না।

কর ফাঁকি এবং সম্পদ গোপনের অভিযোগের ভিত্তিতে ইতোমধ্যেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তদন্ত শুরু হয়েছে।

এদিকে পানামা পেপার্স ফাঁসের পর মঙ্গলবার জনগণের বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করেছেন আইসল্যাডের প্রধানমন্ত্রী সিগমুন্ড গুনলাগসন।