মেইন ম্যেনু

পানির নীচে প্রাচীন শহর, ঘুরে আসতে পারেন আপনিও

পানির তলায় রহস্য আর সৌন্দর্য্যে ঘেরা এক গুপ্তধন! শহরটির গোড়াপত্তন হয়েছিল ১৩০০ বছর আগে। তারপর সময়ের সাথে সাথে বদলেছে এবং সমৃদ্ধ হয়েছে সেটি। তারপর যা হয়- একদিন সেই শহরেরও পতন ঘটে। মানুষের কল্যাণে পথ ছেড়ে দিতে সরে যেতে হয় তাকে। তবে মানুষ কিন্তু তাকে ভুলে যায়নি।

আজ থেকে অর্ধ শতাব্দী আগের কথা। চীনে এক পানিবিদ্যুৎ প্রকল্প তৈরির কারণে ‘লুপ্ত’ হয় শি চেং বা ‘লায়ন সিটি’ নামের এই শহর। মানব-সৃষ্ট এক হ্রদের তলায় ৮৫ থেকে ১৩১ ফিট পানির গভীরে এক প্রকার নির্বাসনই ঘটে তার।

সেই শহরটিকে সম্প্রতি অন্যভাবে উদ্ধার করলেন স্থানীয় পৌর কর্তৃপক্ষ। ওই অঞ্চলের পর্যটন আধিকারিক কিউ ফেং কৌতূহল বোধ করেন পানির নীচে শহরটিকে দেখার। তার পরে একেবারেই ভাগ্য বদলে যায় লায়ন সিটি-র।

পর্যটন বিভাগের উদ্যোগে ওই হ্রদে পর্যটকদের ডাইভিং-এর ব্যবস্থা করা হয়েছে। দ্রুত ‘ডাইভার্স প্যারাডাইস’-এ পরিণত হয় ওই হ্রদ। অনেকেই ভিড় জমাতে থাকেন পানির তলায় গুপ্তধনের আশায়। আবার অনেকে নেহাত রহস্য আর সৌন্দর্য্যের টানেই ডুব দেন হ্রদের গভীরে।