মেইন ম্যেনু

পান পাতা দিয়ে ত্বক চর্চা

বিয়ে-বাড়িতে কিংবা দাওয়াতে ভরপেট খাওয়া শেষ। এবার নানান রঙের মশলা দেওয়া একটি মিষ্টি পান না খেলে যেন খাওয়াটাই অপূর্ণ থেকে যায়। প্রাচীন কাল থেকেই পান কারও নেশা আবার কারও শখ। শুধু স্বাদে নয় ত্বক চর্চায়ও পানের তুলনা নেই। জেনে নিন ত্বকের যত্নে পানের গুণাগুণ সম্পর্কে।

চুলকানি
অ্যালার্জি কিংবা অন্য কোনো সমস্যার কারণে যদি ত্বক চুলকায় তাহলে পান পাতা ব্যবহার করতে পারেন। ১০/১২টি পান পাতা ধুয়ে গরম পানিতে অল্প কিছুক্ষণ সেদ্ধ করুন। পাতা নরম হয়ে গেলেই চুলা থেকে নামিয়ে ফেলুন। পান পাতা সেদ্ধ করা পানি ঠাণ্ডা করে সরাসরি যেই স্থানে চুলকানি আছে সেখানে ব্যবহার করতে পারেন। গোসলের পানির সাথে পান পাতা সেদ্ধ পানি মিশিয়ে নিয়মিত গোসল করলেও উপকার পাওয়া যায়। পানের অ্যান্টি-সেপটিক এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান চুলকানো এবং ত্বকের ফোলা ভাব কমিয়ে চুলকানি উপশম করে।

ব্রণ
পানের অ্যান্টি-সেপটিক এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান ব্রণ সমস্যা সমাধানেও দারুণ কার্যকরী। পান পাতা সেদ্ধ করা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন দিনে কমপক্ষে দুইবার। নিয়মিত ব্যবহারে ব্রণ সমস্যা কমে যাবে।

পোড়া
রাঁধতে গিয়ে ত্বক সামান্য পুড়ে গেছে? ঘরে পান থাকতে তখনই ছেঁচে নিন। এর সাথে সামান্য মধু মিশিয়ে পোড়া স্থানে লাগিয়ে রাখুন। পানের রস পোড়া ত্বকের ব্যথা এবং জ্বালা-পোড়া কমিয়ে দেবে অল্প সময়ের মধ্যেই।

শরীরের দুর্গন্ধ
এই গরমে ঘেমে অনেকের শরীরেই দুর্গন্ধ হয়। ফলে বেশ অপ্রস্তুত অবস্থার সম্মুখীন হতে হয়। শরীরের দুর্গন্ধ দূর করতে বেশ কার্যকরী ভূমিকা রাখে পান। পান পাতা সেদ্ধ পানি করা পানি দিয়ে প্রতিদিন গোসল করলে শরীরের দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। ফেমিনা।






মন্তব্য চালু নেই