মেইন ম্যেনু

পাল্টা হামলার আশঙ্কা ভারতের

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে ঢুকে ভারতীয় সেনাদের ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের’ পর এখন পাকিস্তানের কোনো সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ভারতে পাল্টা হামলা চালাতে বলে আশঙ্কা করছে দিল্লি। ভারত বলছে, দেশটির মেট্রো শহরগুলোতে এ হামলা হতে পারে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। হামলার আশঙ্কায় দিল্লিসহ ৬ রাজ্যে সতর্কতাও জারি করেছে ভারত।

দিল্লি ছাড়া যেসব রাজ্যে হামলার আশঙ্কা করা হচ্ছে সেগুলো হলো- রাজস্থান, পাঞ্জাব, জম্মু এবং কাশ্মির, মহারাষ্ট্র এবং গুজরাট। ভারতের আশঙ্কা এসব রাজ্যের ঐতিহাসিক কোনো স্থান, এয়ারপোর্ট, ব্যাপক জনসমাগম হয় এমন কোথাও বা সরকারি কেনো ভবনে হামলা হতে পারে।

ভারতীয় গোয়েন্দাদের বরাত দিয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে দিল্লিতে হামলা চালানোর নির্দেশনা দিয়েছে আইএসআই। সম্ভাব্য হামলাকারীদের খোঁজে অভিযান শুরু করেছে ভারত।

শুক্রবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে ভারতীয় গোয়েন্দাদের এক বৈঠক থেকে হামলার আশঙ্কার বিষয়টি উঠে আসে।

অক্টোবর জুড়েই ভারতে এ সতর্কতা জারি থাকতে পারে।

১৮ সেপ্টেম্বর ভোরে ভারতের উত্তরাঞ্চলে জম্মু ও কাশ্মীরের উরি শহরের একটা সেনাঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলায় ১৭ সেনা নিহত হন। এ সন্ত্রাসী হামলার পেছনে পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে অভিযোগ ভারতের। পাকিস্তান বলে আসছে ঘটনার সঙ্গে তাদের সম্পৃক্ততা নেই। বরং কাশ্মির পরিস্থিতি থেকে ভারতে বিশ্ব-নজর সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে।

এরপর গত ২৯ সেপ্টেম্বর পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে ঢুকে পড়ে ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইট’ চালায় ভারতীয় সেনারা। ভারতের তরফ থেকে দাবি করা হচ্ছে, এই অভিযানে কয়েকটি জঙ্গি ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

ভারত-পাকিস্তান উভয় দেশকে উত্তেজনা নিরসনে ব্যবস্থা নিতে আহ্বান জানিয়েছে ওয়াশিংটন। তবে সে আহ্বানে এখনো কোনো দেশের তরফ থেকে দৃশ্যমান সাড়া মেলেনি।