মেইন ম্যেনু

পাসের আগে লাশ হলো হাতেম আলী কলেজের ছাত্রী নাঈমা

বরিশাল প্রতিনিধি : পাসের আগেই লাশ হলো নগরীর সরকারী সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের ছাত্রী নাঈমা ইসলাম (২০)। বৃহস্পতিবার দুপুরে লাশের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

কোতোয়ালী মডেল থানার এসআই মুরাদ জানান, বুধবার বিকেলে নগরীর ফলপট্টি এলাকার আবাসিক হোটেল ফেয়ার স্টার থেকে নাঈমার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়। নাঈমা এ বছর সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছিলো।

আগামী ১৮ আগস্ট ফল প্রকাশের আগেই লাশ হলো নাঈমা। তার (নাঈমা) পিতা ইব্রাহীম খান গ্রামীণ ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা ও পটুয়াখালী জেলা সদরের বাসিন্দা। একমাত্র মেয়েকে নিয়ে নগরীর মুসলিম গোরস্থান রোড এলাকার রজনীগন্ধা ভবনে ভাড়া থাকতেন তারা।

এসআই আরও জানান, মঙ্গলবার সকালে নারায়নগঞ্জের নয়াবাজার এলাকার সায়েম আলম ও নাঈমা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে হোটেলের ৩০৯ নম্বর কক্ষ ভাড়া নেয়। রেজিস্টার খাতায় নাঈমার নাম মাহিমা ইসলাম লিখে আসল পরিচয় গোপন রাখা হয়।

বুধবার বিকেলে নাঈমার কথিত স্বামী বাহিরে যাবার পর হোটেলের ভীতর থেকে আটকিয়ে নাঈমা আত্মহত্যা করে। দীর্ঘসময়ে কক্ষ না খোলায় হোটেল কর্তৃপক্ষ পুলিশকে খবর দেয়। ঘটনার পর থেকে নিহত নাঈমার কথিত স্বামীকে খুঁজছে পুলিশ।