মেইন ম্যেনু

‘পাসের হার কমায় দায়ী বিএনপি-জামায়াত’

এইচএসসি (উচ্চ মাধ্যমিক) ও সমমানের পরীক্ষায় এ বছর পাসের হার কমার জন্য বিএনপি-জামায়াতের সহিংস আন্দোলনকে দায়ী করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পরীক্ষার ফল হস্তান্তর অনুষ্ঠানে গণভবনে রবিবার তিনি এ কথা বলেন।

গণভবনে একটি ট্যাবের মাধ্যমে ফলাফলের ডিজিটাল অনুলিপি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরাও এ সময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পরীক্ষার সময় বাংলাদেশে একটি অস্বাভাবিক অবস্থা বিরাজ করছিল। সে সময় বিএনপি-জামায়াতের হরতাল-অবরোধ তো ছিলই, সেই সঙ্গে ছিল পেট্রোলবোমা মারা। এর মধ্য দিয়ে আমরা এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়েছি। বিএন‌পি-জামায়াত আত্মঘা‌তী সহিংস কর্মকাণ্ড না কর‌লে পা‌সে‌র হার আরও বেশি হতো।’

এত প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও পরীক্ষাপরবর্তী ৬০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশ করতে পারায় সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দনও জানান প্রধানমন্ত্রী।

‘শিক্ষার ওপর সব সময় আমরা গুরুত্ব দেই’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘আমরা ধর্মীয় শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করেছি। তেমনি কারিগরি শিক্ষাকেও বাধ্যতামূলক করেছি। বিশ্বের সঙ্গে আমাদের তাল মিলিয়ে চলতে হবে। সে জন্য আমাদের শিক্ষার হার বাড়াতে হবে।’

এর আগে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে এ বছরের এইচএসসি (উচ্চ মাধ্যমিক) ও সমমানের পরীক্ষার ফলের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

শিক্ষামন্ত্রীও ফল বিপর্যয়ের কারণ হিসেবে বছরের শুরুর হরতাল-অবরোধ ও রাজনৈতিক অস্থিরতাকে দায়ী করেন।

ফলাফল সা‌র্বিকভা‌বে ভা‌লে না হ‌লেও অংক, বিজ্ঞান ও কা‌রিগ‌রি‌তে ভা‌লে ক‌রে‌ছে বলেও মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

এবারের এইচএসসি ও সমমানের এবারের পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৬৯ দশমিক ৬০ শতাংশ। গত বছর গড় পাসের হার ছিল ৭৮ দশমিক ৩৩ শতাংশ। গত বছরের তুলনায় এবার পাসের হার কমেছে ৮ দশমিক ৭৩ শতাংশ। এবার জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের সংখ্যাও কমেছে ২৭ হাজার ৭০৮ জন। এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪২ হাজার ৮৯৪ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ৭০ হাজার ৬০২।