মেইন ম্যেনু

পাহাড়ের কোলে এক অনন্য শান্তির খোঁজে

নিছক ঘুরতে যাওয়া নয়৷ প্রকৃতির কোলে এক অনন্য শান্তির মাঝে কয়েকটা দিন কাটানো৷ নিঝুম রাতে শীতের পরশে কালো আকাশে জ্বলজ্বল করতে থাকা তারামণ্ডলকে নতুন করে চেনা৷ ভূপৃষ্ঠ থেকে ৫,০০০ হাজার ফুট উপরে শান্তির এই আশ্রয়৷ দার্জিলিংয়ের লোলেগাঁও চারখোল গ্রাম৷

কী দেখবেন –

চারখোলের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ এখানকার আটটি ছিমছাম সুন্দর কাঠের কটেজ৷ শুধুমাত্র থাকার জন্য

যেখানে থাকা নয়৷ স্থানীয়দের ভালবাসার পরশে মনের মণিকোঠায় অমর কিছু স্মৃতি সযত্নে রেখে দেওয়া৷
কটেজের বারান্দা থেকেই সকাল স্বাগত জানায় সুবিশাল কাঞ্চনজঙ্ঘাকে৷
সামনে দু’চোখ ভরা সবুজের গালিচা পাতা৷
কিছুক্ষণের হাঁটা দূরত্বেই প্রকৃতির ‘ওয়ান্ডারবল্যান্ড’ চুইখিম৷
পাইনের সারিকে পাশে রেখে হাঁটতে হাঁটতেই খুঁজে পেতে পারেন দুর্লভ অর্কিড৷
রাতে বন ফায়ারের মাঝে আরও একবার আবিষ্কার করে ফেলতে পারেন শুকতারা, সপ্তর্ষিমণ্ডলদের৷

কীভাবে যাবেন –

লোলেগাঁও থেকে মাত্র ১৫ কিলোমিটার দূরে চারখোল গ্রাম৷ লাভা, লোলেগাঁও, কালিম্পং থেকে গাড়ি ভাড়া করে যাওয়া যেতে পারে৷

কোথায় থাকবেন –

গ্রামে রিসর্ট, কটেজ ছাড়াও রয়েছে হোম স্টে’র সুবিধা৷ স্থানীয়রা যথেষ্ট খেয়াল রাখেন পর্যটকদের৷