মেইন ম্যেনু

পায়ে দেবীর উল্কি এঁকে বিপাকে অস্ট্রেলিয়ান যুবক

ভারতের বেঙ্গালুরুরের এক রেস্তোরাঁয় খেতে গিয়েছিলেন এক অস্ট্রেলিয়ান দম্পতি। আর সেখানে গিয়েই পড়লেন হেনস্থার মুখে। তাদের অপরাধ পায়ের উল্কিতে ভারতের এক প্রাচীন দেবীর মুখ এঁকেছেন।

কিছুদিন আগেই মেলবোর্ন থেকে ম্যাথু গর্ডন ও তার প্রেমিকা এমলি কাসিনোউ ভারতে আসেন। গর্ডনের পায়ে হিন্দুদের খুব প্রাচীন দেবী ইয়েলাম্মার উল্কি আঁকা। সে অভিযোগেই তাকে ঘিরে ধরেন অনেকে। বিভিন্নভাবে হেনস্থা করা হয় তাকে।

অস্ট্রেলিয়ান গর্ডন বলেন, ‘রেস্তোরাঁয় প্রথমে একজন এসে আমাকে প্রশ্ন করেন, আমি কেন দেবী ইয়েলাম্মাকে আমার পায়ে এঁকেছি। এ নিয়ে কথাকাটাটি শুরু হয়। এরপরই অনেকেই আমাদের ঘিরে ধরে নিগ্রহ করেন। পা থেকে সেই উল্কিকে কেটে সরিয়ে ফেলারও হুমকি দেন।’

পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে অস্ট্রেলিয়ান ওই যুগলকে উদ্ধার করে। পুলিশ অবশ্য এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করেনি। বেঙ্গালুরুর পুলিশের এক কর্তা জানান, পুরো বিষয়টির সঙ্গে হিন্দু বিশ্বাস জড়িত থাকায় এ নিয়ে এখনো কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।

এদিকে জানা যায়, দক্ষিণ ভারতের খুব প্রাচীন দেবী ইয়েলাম্মা। বিশেষ করে আদিবাসীদের দেবী তিনি। লোকবিশ্বাস, এই দেবী খুব জাগ্রত।