মেইন ম্যেনু

পিকআপের ধাক্কায় বেরোবি শিক্ষার্থী আহত: মহাসড়ক অবরোধ

সড়ক দুর্ঘটনায় রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) ফাইন্যান্স এ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের পঞ্চম ব্যাচের মেহেদি হাসান রনি নামে একজন শিক্ষার্থী গুরুত্বর আহত হয়েছেন। তাঁকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জরুরী বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা রাস্তা অবরোধ করে রাখেন। এ সময় তারা দ্রুত ওভার ব্রীজ ও স্পীড ব্রেকারের নির্মানের দাবি জানান।

বুধবার দুপুর ১২ টায় বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন পার্কের মোড়স্থ ২ নং গেটের সামনে ঢাকা-কুড়িগ্রাম মহাসড়কে পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে জানা যায়।

প্রত্যেক্ষদর্শীসূত্রে জানা যায়,‘আহত শিক্ষার্থী সেই সময় বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করার জন্য আসছিলেন। রাস্তা পারাপারের সময় একটা পিকআপ ভ্যান পিছন দিক দিয়ে এসে তাকে ধাক্কা দিলে তিনি মাটিতে ঢলে পরে যান। পরে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।’

এদিকে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিশ্বদ্যিালয়ের বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা সোয়া ১২ টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত দেড় ঘন্টা রাস্তা অবরোধ করে রাখেন। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের রাস্তা দিয়ে কোন যান চলাচল করতে পারেনি। এ সময় শিক্ষার্থীরা দ্রুত ওভার ব্রীজ ও স্পীড ব্রেকার দেওয়ার জন্য শ্লোগানও দেন। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (চলতি দায়িত্ব) শাহীনুর রহমান এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

আহত শিক্ষার্থীর ডান হাতের দুই জায়গায় হাড় ভেঙ্গে গেছে বলে জানিয়েছের তাঁর কর্তব্যরত চিকিৎসক।
বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শফিকুল ইসলাম বলেন,‘পরিস্থিতি আমরা শান্ত রাখার চেষ্টা করেছি।’
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (চলতি দায়িত্ব) শাহীনুর রহমান জানান,‘ আমরা রংপুর হাইওয়ের নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে এ ব্যাপারে কথা বলেছি। তিনি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন যে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এখানে স্পীড ব্রেকার দেওয়ার ব্যাবস্থা করা হবে। আর আহত শিক্ষার্থীকে আমি নিজেই মেডিকেলে দেখে এসেছি।’
এদিকে রংপুর হাইওয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন জানিয়েছেন,‘রংপর ক্যাডেট কলেজও রাস্তায় স্পীড ব্রেকার দেওয়ার জন্য স্বারকলিপি দিয়েছে। কাজেই আমরা সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে সবার সাথে কথা বলে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিবো।’

জানা যায়, গত এক বছরের মাথায় এ ধরনের প্রায় ২০ টির মত দুর্ঘটনা ঘটেছে। স্পীড ব্রেকার ও ওভার ব্রীজ নির্মানের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকে মৌখিক ও লিখিতভাবে বেশ কয়েকবার জানানোও হয়েছিল।

উল্লেখ্য যে, বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি গেটের সামনে স্পীড ব্রেকার ও ওভার ব্রীজ নির্মানের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টসহ শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সংগঠন বিভিন্ন সময়ে মানবন্ধন ও সমাবেশ করেছিল। এমনকি সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘লাইফ ইজ বিউটিফুল’ নামের একটি সংগঠন সড়ক ও জনপদ মন্ত্রনালয়ের রোড এন্ড হাইওয়ে শাখায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে স্পীড ও ওভার ব্রীজ নির্মানের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করে। এর আগে গত আগস্ট থেকে এ ব্যাপারে সংগঠনটি প্রায় দুই হাজার শিক্ষাথীর কাছ থেকে গণস্বাক্ষরও সংগ্রহ করে।