মেইন ম্যেনু

পিঠের বিরক্তিকর ব্রণ থেকে রেহাই পাবেন কিভাবে?

আমাদের ব্রণের সমস্যা থেকে আমরা রেহাই কবে পাবো? এই দুঃখ অনেকের মনেই আছে। মুখের পাশাপাশি পিঠেও ব্রণ হয়। এই ব্রণ খুবই অস্বস্তিকর। পিঠের ওপর কাপড় থাকার কারণে চুলকায়ও বেশি। আর সহজে এই ব্রণ দূর হতে চায় না। তবে ঘরোয়া উপায়ে এই ব্রণ দূর করা সম্ভব। আসুন জেনে নেই ব্রণের কিছু হোম রেমেডি –

১। বেকিং সোডা তিন চা চামচ বেকিং সোডার সঙ্গে এক চা চামচ পানি মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন। এবার এটি পিঠে লাগিয়ে কিছুক্ষণ পর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত দুদিন এই প্যাক ব্যবহার করুন। অথবা দুই টেবিল চামচ বেকিং সোডার সঙ্গে এক টেবিল চামচ লেবুর রস, এক চা চামচ দারুচিনির গুঁড়ো ও পাঁচ টেবিল চামচ মধু একসঙ্গে মিশিয়ে পিঠের ব্রণের ওপর লাগান। এতে অনেক দ্রুত ব্রণ দূর হবে।

২। লেবুর রস তুলায় লেবুর রস নিয়ে পিঠের ব্রণের ওপর লাগান। কয়েক ঘণ্টা রেখে দিন। এবার হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ব্রণ সহজেই দূর হবে।

৩। ওটমিল এক কাপ রান্না করা ওটমিলের সঙ্গে অর্ধেক লেবুর রস ও এক চা চামচ মধু মিশিয়ে পিঠের ব্রণের ওপর লাগান। আধা ঘণ্টা পর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত তিনদিন এই প্যাক ব্যবহার করুন।

৪। টমেটোর রস টমেটো কেটে পিঠের ব্রণের ওপর ঘষুন। ১৫ মিনিট রেখে দিন। এবার হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৫। হলুদের গুঁড়ো দুই টেবিল চামচ হলুদের গুঁড়োর সঙ্গে এক টেবিল চামচ দুধের ক্রিম মিশিয়ে পিঠে লাগান। ভালো ফল পেতে সপ্তাহে অন্তত দুদিন এই প্যাক লাগান।

৬। রসুন রসুন বাটা পিঠের ব্রণের ওপর লাগিয়ে কয়েক ঘণ্টা রেখে দিন। এবার হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৭। ভিটামিন ই অয়েল বাজারে ভিটামিন ই অয়েলের ক্যাপসুল কিনতে পাওয়া যায়। এই তেল পিঠে লাগিয়ে সারা রাত রেখে দিন। সকালে গোসল করে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত একবার এই তেল পিঠে লাগান।

৮। কমলার খোসা কমলার খোসার সঙ্গে পানি মিশিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করুন। এবার পিঠে লাগিয়ে শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিনই এই প্যাক ব্যবহার করতে পারেন।

৯। শসার রস দিনে দুবার পিঠে শসার রস লাগান। ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ব্রণ সহজেই দূর হবে।

১০। মধু পিঠের ব্রণের ওপর মধু লাগিয়ে শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এবার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

১১। আলুর রস আলুর রস দিয়ে পিঠে ম্যাসাজ করে কিছুক্ষণ রেখে দিন। এবার হালকা গরম পানি দিয়ে পিঠ ধুয়ে ফেলুন।

সতর্কতাঃ – ব্রণ দূর করতে প্রচুর পরিমাণে পানি খান। – ফল ও শাকসবজি বেশি করে খান। – পিঠ প্রতিদিন ভালো করে পরিষ্কার করুন। – রোদে যাওয়ার আগে পিঠেও সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। – বেশি ঘামালে দিনে দইবার গোসল করুন। এতে ত্বক পরিষ্কার থাকবে।