মেইন ম্যেনু

পীরগঞ্জ পাইলটের প্রধান শিক্ষকসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে এক বাড়িতে হামলা চালিয়ে গৃহবধূকে মারপিট আসবাবপত্র ভাংচুর, টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটের অভিযোগে পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মফিজুল হকসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে। আদালত তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দেয়ার জন্য পীরগঞ্জ থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছে।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, জগথা (সরদার পাড়া) গ্রামের আনাসারুল ইসলামের সাথে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের বাসিন্দা পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মফিজুল হক ও তাঁর লোকজনের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গত ৬ জুন বিকেলে মফিজুল হকের নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একদল সন্ত্রাসী আনাসারুল হকের বাড়িতে হামলা চালায়।তারা গৃহকর্তার স্ত্রী জাহেদা খাতুন (৪২) কে মারপিট করে বাড়ির আসবাবপত্র ভাঙচুর, নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে । পালিয়ে যাওয়ার সময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বাঁধা দিলে তাঁদেরও মারপিট কওে সন্ত্রাসীরা।

পরে এলাকাবাসী এসে আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে পীরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় জাহেদা খাতুন (৪২) বাদী হয়ে পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে গত ৯ জুলাই ঠাকুরগাঁও সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করে। তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দেয়ার জন্য আদালত পীরগঞ্জ থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন। এ বিষয়ে মামলার প্রধান আসামী মফিজুল হকের সাথে মুঠোফোনে (০১৭১৬৪৫৬৮৭০) এই নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।