মেইন ম্যেনু

পুরনো ফোন ফেলে দেন? প্রতিটি স্মার্টফোনেই রয়েছে খাঁটি সোনা!

শুধু মেয়েদের নয়, সোনার প্রতি টান কমবেশি সবার। সেটা সোনার মেডেল হোক বা সোনার বিস্কুট। কিন্তু জানেন কি স্মার্টফোন তৈরিতেও ভাল পরিমাণে সোনা ব্যবহৃত হয়।

আপনার স্মার্টফোনও সোনা আছে। আইফোন হলে তো কথাই নেই। সাধরণ স্মার্ট তৈরি করতেও লাগে সোনা। একটি স্মার্টফোনে সামান্য পরিমাণে সোনা থাকলেও গোটা বিশ্বে যত স্মার্টফোন ব্যবহার করা হয় তার হিসেব কষলে মোট সোনার পরিমাণটাও কম নয়। একটি হিসেব বলছে, খনি থেকে তোলা এক টন কাঁচা সোনা থেকে যতটা ব্যবহারযোগ্য সোনা পাওয়া যায় তার থেকে বেশি সোনা পাওয়া যায় এক টন বাতিল করা স্মার্টফোন থেকে।

তাও আবার ব্যাটারি বাদ দিয়ে ওজন করার পরে। রাষ্ট্রসংঘের ইলেকট্রনিক ওয়েস্ট সংক্রান্ত রিপোর্টের দাবি, ৪১টি ফোন থেকে ১ গ্রাম সোনা পাওয়া যায়।

সোনা খুব ভাল তড়িৎবাহী ধাতু। সেই কারণে, ফোনের চিপের ভিতরে সোনা ব্যবহার করা হয়। ভাল সিগন্যাল পাওয়ার জন্যও ফোনে সোনার ভূমিকা রয়েছে। শুধু সোনাই নয়, স্মার্টফোন তৈরি করতে রুপো এবং প্ল্যাটিনামও ব্যবহার করা হয়। তা হলে স্মার্টফোনের দাম বেশি হবে না কেন?

একটি আইফোনে ০.০০১২ আউন্স সোনা থাকে। এছাড়াও ০.০১২ আউন্স রুপো এবং ০.০০০০১২ আউন্স প্ল্যাটিনাম থাকে। এছাড়াও যথাক্রমে ৫ সেন্ট ও ১২ সেন্ট করে অ্যালুমিনিয়াম ব্যবহৃত হয়।