মেইন ম্যেনু

পুরস্কার ঘোষিত ডাকাতকে জেল থেকে মুক্ত করতে অর্থের মিশন

কল্যান কুমার চন্দ, বরিশাল প্রতিনিধি: সম্প্রতি সময়ে সরকার কর্তৃক ১ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষিত (বর্তমানে বরিশাল কারাগারে) আন্তঃজেলা ডাকাত সর্দার নুরুল ইসলামকে জেল থেকে মুক্ত করতে তার সহযোগীরা মোটা অংকের টাকার মিশন নিয়ে মাঠে নেমেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অপরদিকে বাবুগঞ্জ উপজেলার পূর্ব দেহেরগতি গ্রামের জনৈক মতিউর রহমানের গৃহে ডাকাতির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে থাকা ডাকাত সর্দার নুরুল ইসলামের সহযোগীরা মামলা প্রত্যাহারের জন্য বাদি মতিউর রহমানকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতিসহ প্রাণনাশের হুমকি অব্যাহত রেখেছে।

সূত্রমতে, আন্তঃজেলা ডাকাত সর্দার নুরুল ইসলামকে ধরিয়ে দেয়ার জন্য ১৯৯৮ সালে সরকার কর্তৃক ১ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। এরপর সে আত্মগোপনে থেকে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে ডাকাতি করে আসছিলো। সর্বশেষ চলতি বছরের ৩০ এপ্রিল গভীর রাতে বাবুগঞ্জের পূর্ব দেহেরগতি গ্রামের ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান নয়নের বাড়িতে সশস্ত্র অবস্থায় ডাকাতি করে নুরুল ও তার সহযোগীরা। ওইসময় ডাকাত নুরুলকে চিনে ফেলায় ব্যবসায়ী নয়নের পিতাসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের কুপিয়ে জখম করা হয়।

এ ঘটনায় মতিউর রহমান বাদি হয়ে একই উপজেলার উত্তর রহমতপুর গ্রামের বাসিন্দা ও আন্তঃজেলা ডাকাত সর্দার নুরুল ইসলামসহ অজ্ঞাতনামা ১০/১২জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। গত ১৭মে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আত্মগোপনে থাকা ডাকাত সর্দার নুরুল ইসলামকে বাবুগঞ্জের পাঁচরাস্তার মোড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

বাবুগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সালাম জানান, আন্তঃজেলা ডাকাত সর্দার নুরুল ইসলামের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় চাঁদাবাজি ও ডাকাতির অসংখ্য মামলা রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের পর বাবুগঞ্জবাসী এখন নিশ্চিন্তে রাত্রিযাপন করছেন। তার সহযোগীদেরও গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান চলছে।