মেইন ম্যেনু

পুরুষত্বকে ঝুঁকির মুখে ফেলছে স্কিন টাইট জিন্স!

আঁটোসাঁটো বা স্কিন টাইট জিন্স বেশ কয়েক বছর ধরে খুবই জনপ্রিয়। বিশেষ করে ফ্যাশন সচেতন মেয়ে এবং যুবকদের কাছে খুবই জনপ্রিয় এটি। কিন্তু এ জিন্স পরার বিরুদ্ধে সতর্ক করে দিয়েছেন চিকিত্সকরা। শরীরের সঙ্গে অতিরিক্ত সেঁটে থাকায় বিশেষ কিছু অঙ্গের উপর খারাপ প্রভাব ফেলছে এ জিন্স প্যান্ট।

যা পুরুষদের পক্ষেই বেশি হানিকারক। এমন কি হারাতে পারেন পুরুষত্বও।

সম্প্রতি এ নিয়ে একটি সমীক্ষা চালানো হয়। দুই হাজার পুরুষের উপর করা এই সমীক্ষায় দেখা যায়, স্কিন টাইট জিন্স পরায় মূলত মূত্রনালি ইনফেকশন, বিকৃত অণ্ডকোষ, মূত্রথলি ইনফেকশনসহ আরো কিছু শারীরিক সমস্যা সৃষ্টি হয়।

গবেষণার অন্যতম পরিচালক ডক্টর হিলারি জোনস দাবি করেছেন, বেশি সময় ধরে স্কিন টাইট জিন্স পরে থাকলে তা অণ্ডকোষগুলোর স্বাভাবিক কার্যক্রিয়ায় প্রভাব ফেলে। এর ফলে মূত্রথলি প্রয়োজনের থেকে বেশি তৎপরতা দেখায়। পরিণামে মূত্রনালিতে দেখা দেয় ইনফেকশন। তাছাড়া বীর্যধারণ ক্ষমতাও কমে যায়।

এমনকি অনেক পরুষের অণ্ডকোষ বিকৃতও হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে সমীক্ষায়। স্কিন টাইট জিন্স কিডনির উপরও প্রভাব ফেলে বলে জানিয়েছেন ডক্টর হিলারি জোনস। তার মতে, এমন জিন্স পরা উচিত, যা শরীর সঙ্গে প্রবলভাবে সেঁটে থাকবে না। শরীর ও প্যান্টের মধ্যে জায়গা থাকতে হবে।

এদিকে জার্নাল অব নিউরোসার্জারি অ্যান্ড সাইক্রিয়াট্রিতে চিকিত্সকরা স্কিন টাইট জিন্স বা আঁটোসাঁটো জিন্সের প্যান্ট পরায় সতর্ক করে দিয়েছেন। শরীরের একগুচ্ছ পেশি রক্তপাত এবং ফুলে যাওয়ার কারণে যে অবস্থার তৈরি হয় তাকে চিকিত্সকরা ‘কম্পার্টমেন্টাল সিনড্রোম’ বলেন। এটি বেশ গুরুতর রূপ নিতে পারে।