মেইন ম্যেনু

পুরুষ কখন যৌন মিলনে না করে ?

ঘনিষ্ঠতায় না- পুরুষের মুখে এ কথা যেন বিড়ালের মুখে মাছ না খাওয়ার মতো৷ মনোবিদরা বলেন, পুরুষরা স্বাভাবিক অবস্থায় কখনওই হাসিমুখে ঘনিষ্ঠতা উপেক্ষা করতে পারেন না৷ একথা আদি যুগ থেকে চলে আসছে যে সঙ্গম পুরুষদের কাছে সবসময়ই আকর্ষনীয়৷ নারীর শরীর সবসময়ই প্রলোভনের হাতছানি দেয় পুরুষ মনকে৷

তার উপর যদি সেই নারীর প্রতি থাকে প্রেম তাহলে তো দৈহিক মিলনে ‘না’ বলার কথাই ওঠে না৷ নারীর শরীরই পুরুষের সব থেকে দুর্বল জায়গা৷ এমন কি যুগপুরুষদের ধ্যান থেকে সাধারণের রাগ-সবই যুগ যুগ ধরে হার মেনেছে নারী শরীরের কাছে৷তাই পুরুষ কোন নারীকে অকারণে মিলনে ‘না’ বলেন না৷ অবশ্যই তার পিছনে কিছু কারণ থাকে, এমনটাই জানাচ্ছেন মনোবিদরা৷

কী কী কারন নারীর শরীর থেকে বিরত রাখতে পারে পুরষকে তা দেখে নেওয়া যাক

১. যখন আপনার সঙ্গী আপনার শারীরিক ডাকে সারা দিচ্ছেন না তখন সবথেকে বেশি সম্ভবনা রয়েছে যে জিনিসটার, তা হল- আপনার সঙ্গী অন্য কোনও নারীর কথা ভাবছেন৷ অন্য নারীর শরীরের প্রতি আকর্ষণ বা তাঁর প্রতি শুধু মানষিক আকর্ষণ-দুটোর যে কোনও একটা আপনার সঙ্গীকে আপনার থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে পারে৷

২. আপনার সঙ্গী হয়তো কোনও পরীক্ষামূলক আচরণ করতে চাইছেন নিজের সঙ্গেই৷ আর নিজের চাহিদার সেই পরীক্ষায় তিনি সফল হওটার জন্যই আপনাকে ‘না’ বলে দিচ্ছেন৷ আসলে তিনি দেখছেন নিজেকে তিনি আপনার থেকে বিরত রাখতে পারেন কিনা৷

৩. আরও একটি সম্ভবনা আপনার সঙ্গীকে ঘনিষ্ঠ হওয়া থেকে বিরত রাখতে পারে৷ আর তা হল আপনার সঙ্গীর নিজের যৌন চাহিদা বুঝতে পারা৷ হয়তো আপনার সঙ্গীর যৌন চাহিদা স্বাভাবিক নয়৷ তিনি সমকামীতার শিকার৷

৪. আরও একটি সরল সম্ভবনার কথা বলেছেন মনোবিদরা৷ তা হল আপনার সঙ্গী আপনাকে স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দিতে চাইছেন তাঁকে আর সঙ্গমের অনুরোধ কখনওই না করতে৷