মেইন ম্যেনু

পুরুষ হয়ে জন্মালেও এখন তারা নারী মডেল

প্রকৃতি রূপ দিয়েছে তাদের পুরুষের কিন্তু মনে প্রাণে নিজেদের নারী মনে করেন তারা। তাই প্রকৃতির বিরুদ্ধে গিয়ে আধুনিক চিকিৎসা পদ্ধতি অবলম্বন করে আজ তারা সম্পূর্ণ নারী। শুধু তাই নয়, এরা প্রত্যেকেই স্ব স্ব অবস্থানে বেশ প্রতিষ্ঠিত ও জনপ্রিয় মডেল এবং অভিনেত্রী।

ক্লদিয়া: পুরুষ হিসেবে জন্মগ্রহণ করেন মার্কিন এই মডেল। কিন্তু নিজেকে মেয়ে ভাবতেই ভালোবাসতেন তিনি। তাই পরবর্তীকালে অস্ত্রোপচার করিয়ে নারী হন ক্লদিয়া। ২০০৯ সালে আমেরিকার সেরা রূপান্তরকামী মডেলের শিরোপা জিতে নেন তিনি। বর্তমানে তিনি একজন প্রতিষ্ঠিত মডেল।

চামিলা অসঙ্ক: চামিলা অসঙ্ক হলেন শ্রীলঙ্কার নামকরা রূপান্তরকামী মডেল। ১৫ বছর বয়সে নিজের অস্ত্রোপচার করিয়েছেন নিজের। মডেলিংয়ের দুনিয়ায় মেয়েরাও হার মেনেছে তাঁর কাছে।

ত্রিচাদা মালায়াপোর্ন: তার পরিচিতি নং পয় নামে। বর্তমানে তিনি একজন থাই মডেল ও অভিনেত্রী। মাত্র ১৭ বছর বয়সে তিনি পুরুষ থেকে মহিলা হন।

অ্যালিসিয়া লিউ: তাইওয়ানের ফ্যাশন দুনিয়ার একজন তারকা। পুরুষ হিসেবে জন্মগ্রহণ করার পর মাত্র ১৮ বছর বয়সে তিনি নিজেকে রূপান্তরিত করেন।

কেলি ফন ডার ভিয়ের: কেলি ফন ডার ভিয়ের একজন গায়িকা এবং অভিনেত্রী। তিনিও পুরুষ হয়ে জন্মেছিলেন। ১৯ বছর বয়সে অস্ত্রোপচার করিয়ে মহিলা হন। তিনি বিগ বস-এর প্রাক্তন প্রতিযোগী ছিলেন।