মেইন ম্যেনু

পুলিশের তাড়া খেয়ে মাদকের গাড়ি খাদে

সাতক্ষীরা: শ্যামনগর থানা পুলিশের তাড়া খেয়ে মাদক বহনকারী একটি প্রাইভেট কার খাদে পড়ে। পরে দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ১০ বোতল ফেনসিডিল।

সোমবার বিকেল ৫টার দিকে শ্যামনগর উপজেলার ভুরুলিয়ার চালতেঘাটা বাজার রোডে ওই ঘটনা ঘটে। তবে প্রাইভেট কারের চালককে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ শ্যামনগর উপজেলার ভুরুলিয়া ইউনিয়নের ইসলামিক মিশন এলাকায় অভিযান চালায়। সেখানে সন্দেহজনক একটি প্রাইভেটকারকে থামাতে বললে কারটি দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে পুলিশের তাড়া খেয়ে চালক পালাতে গিয়ে ভুরুলিয়ার চালতেঘাটার খালের মধ্যে পড়ে কারটিসহ পড়ে যায়।

এসময় পুলিশ কারটি (ঢাকা মেট্টো-খ-১১-৪৪৯৬) জব্দ করে। এরপর কারের ভেতর থেকে ১০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

একাধিক সূত্র জানায়, খানপুর কাটিবার হল গ্রামের পুরোনো মাদক ব্যবসায়ী সুধীর দাসের ছেলে বিশ্বজিৎ দাসের কাছ থেকে ১০ বোতল ফেনসিডিল কেনের সাইফুল কাজী নামে এক যুবক। প্রাইভেট কারে করে মাদক নিয়ে কালিগঞ্জ যাওয়ায় সময় গোপনে সংবাদ পায় পুলিশ। বিকেল ৫টায় শ্যামনগর থানার এস আই আসাদ ও এএসআই ইমরান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালান।

এ সময় পুলিশের অবস্থান বুঝতে পেরে প্রাইভেটকার ফেলে পালিয়ে যায় সাইফুল কাজী। এদিকে প্রাইভেটকারটি ফেনসিডিলসহ চালতেঘাটা বাজার রোডের পাশের খালে পড়ে যায়।

এস আই আসাদ জানান, পৃথক অভিযানে ফেনসিডিল আর কার উদ্ধার করা হয়েছে। কারে কোনো লোক পাওয়া যায়নি, পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার দেখানো হয়েছে।

অভিযুক্ত সাইফুল কাজীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় মাদক আইনে শ্যামনগর থানায় মামলা হয়েছে।