মেইন ম্যেনু

পুলিশের সামনেই নিজের কাপড় খুলে ফেললেন এক নারী! অতপর…

যে কোনো লোককেই সন্দেহ হলে পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই পারে। তাই বলে কি কোনো নারী তার নিজের কাপড় খুলে ফেলেবে? কিন্তু এমনটাই হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এলিরিয়ায়।

এক নারীকে ওই মহিলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পরই তিনি চিৎকার করে বলেন, “আপনি দেখতে চান আমার কাছে কী রয়েছে।” এরপরই নিজের জামা উপরের দিকে তুলে দেন তিনি। তবে খবর আরও একটা আছে। জামা তুলতে গিয়ে ফেঁসে যান এলিজাবেথ জনসন নামে ওই নারী। তার ব্রায়ের ভেতর থেকে কোকেন ভর্তি একটি ক্র্যাক পাইপ নীচে পড়ে যায়। তারপরই তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, এলিরিয়ার গ্রিস ওল্ড রোডে এলিজাবেথ জনসন নামের এক নারীর গাড়ি থামান পুলিশ সার্জেন্ট। গাড়িটি দাঁড় করানোর পরই ওই পুলিশ কর্মকর্তা দেখতে পান, নিজের জামার ভিতরে হাত ঢুকিয়ে কিছু একটা লুকাচ্ছেন এলিজাবেথ। তা দেখেই ওই কর্মকর্তা তাকে গাড়ির বাইরে আসতে বলেন। কিন্তু বাইরে আসতে অস্বীকৃতি জানিয়ে গাড়ির দরজা বন্ধ করে দেন এলিজাবেথ।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা তাকে বোঝানোর পর এলিজাবেথ বাইরে আসেন। সেই সঙ্গে চেঁচামেচি করে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বারবার ওই কর্মকর্তাকে বলেন, আমার কাছে কোনো অবৈধ জিনিস নেই। শুধু শুধুই আমাকে হয়রানি করা হচ্ছে।

কিন্তু ওই কর্মকর্তা তার কথা শুনতে না চাওয়ায় চিৎকার করে এলিজাবেথ জনসন বলেন, ‘আপনি দেখতে চান আমার কাছে কী রয়েছে?’ এই বলেই সবাইকে চমকে দিয়ে নিজের জামা এবং ব্রা তুলে ফেলেন তিনি। আর তারপরই একটি কোকেন ভর্তি ক্র্যাক পাইপ নিচে পড়ে যায়।

এলিজাবেথ জনসনের এই আকস্মিক কাণ্ডে কয়েক মুহূর্তের জন্য হতচকিত হয়ে যান পুলিশ কর্মকর্তা। তারপরই নিজেকে সামলে নিয়ে ওই নারীকে জামা নামানোর জন্য বললেন তিনি। এরপরই মাদক রাখা এবং পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে এলিজাবেথ জনসনকে গ্রেপ্তার করা হয়।