মেইন ম্যেনু

পৃথিবীর সৃষ্টি সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য!

চাঞ্চল্যকর তথ্য। এক লহমায় বদলে যেতে পারে এ যাবত্‍‌ আবিষ্কৃত সব বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা। নতুন করে লেখা হবে বিজ্ঞান। কোনও একটি গ্রহ বা গ্রহাণু নয়, পৃথিবী সৃষ্টি হয়েছিল দুই গ্রহের ধাক্কায়। অর্থাৎ‍‌, দুই গ্রহের মিলনেই জন্ম হয়েছিল পৃথিবীর। হ্যাঁ, এমনই তথ্য উঠে এল বিশ্বের একদল তাবড় বিজ্ঞানীর গবেষণায়।

পৃথিবীর সৃষ্টি কী ভাবে হয়েছিল, তা নিয়ে দীর্ঘ গবেষণা চালানোর পর বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর প্রমাণ উঠে এসেছে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষকের হাতে। তাদের গবেষণায় দেখা গিয়েছে, আজ থেকে প্রায় সাড়ে ৪০০ কোটি বছর আগে দুটি গ্রহের তীব্র সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের তীব্রতা এতটাই ছিল যে, জুড়ে যায় গ্রহ দুটি। গবেষণায় উঠে এসেছে, পৃথিবী নামক গ্রহের সঙ্গে চরম সংঘর্ষ হয়েছিল থিয়া নামে একটি গ্রহের। সংঘর্ষের সময় পৃথিবীর বয়স ছিল ১০ কোটি বছর। সংঘর্ষের জেরে থিয়া ও পৃথিবীর জুড়ে যায়, তৈরি হয় নতুন গ্রহ। সেই গ্রহটিতেই আমরা বাস করছি। তিনবার চন্দ্র অভিযানে পাওয়া

চাঁদের মাটি এবং হাওয়াই অ্যারিজোনায় পাওয়া আগ্নেয়শিলা মিলিয়ে চমকে যান গবেষকরা। দুটি পাথরের অক্সিজেন আইসোটোপে কোনও ফারাক নেই। গবেষকদলের প্রধান অধ্যাপক এডওয়ার্ড ইয়ংয়ের কথায়, চাঁদের মাটি আর পৃথিবীর মাটির অক্সিজেন আইসোটোপে কোনও পার্থক্য পাইনি। আমাদের মনে হচ্ছে, থিয়া নামক গ্রহটি তখন পরিণত হচ্ছিল। ঠিক সেই সময়েই ধাক্কাটি লাগে এবং পৃথিবীর সৃষ্টি হয়।