মেইন ম্যেনু

পেঁয়াজ কাটতে গিয়ে কান্না করেন ? তাহলে এই পদ্ধতিটি আপনারই জন্য!

পেঁয়াজ ছাড়া রান্না করা অসম্ভব। আবার কান্না ছাড়া পেঁয়াজ কাটা, সেটাও বলতে গেলে অসম্ভব। প্রায় সকলেরই পেঁয়াজ কাটতে গেলে চোখে পানি চলে আসে। এইরকম ঘটনা কেন ঘটে? আমরা যখন পেঁয়াজ কাটি তখন এর ভেতরের থাকা অসংখ্য কোষগুলোকে কেটে ফেলি। এর কারণে পেঁয়াজের কোষের ভেতরে থাকা পদার্থগুলো মুক্ত হয়ে যায়। কোষে থাকা অ্যামিনো এসিড ও সালফোক্সাইড এসিড বিক্রিয়া করে সালফেনিক এসিড তৈরি করে। আর পরবর্তীতে এই এসিড বাতাসের মাধ্যমে আমাদের চোখের ভেতর প্রবেশ করে জ্বালাপোড়ার সৃষ্টি করে থাকে। আর এই এসিড দূর করে দেওয়ার জন্য প্রাকৃতিকভাবে চোখের ভেতর থেকে পানি চলে আসে, যা আমরা কান্না বলে মনে করে থাকি। অদ্ভুত বিষয় হলো, রান্নার সময় পেঁয়াজের ভেতরে থাকা এনজাইমগুলো নষ্ট হয়ে যায় যার কারণে তখন পেঁয়াজের ধোঁয়ায় চোখে পানি আসে না। এই সমস্যার সহজ একটি সমাধান আছে। আসুন তাহলে জেনে নিই সহজ উপায়টি।

যা যা লাগবে: পেঁয়াজ ও একটি ধারালো ছুরি

যেভাবে করবেন:

১। প্রথমে পেঁয়াজের গোড়ার অংশটি অর্থাৎ যেখানে মূল থাকে সেটি একটি ধারালো ছুরি দিয়ে গোল করে কেটে ফেলুন। এমনভাবে কাটবেন যেন ভিতরের আঁশটি বের হয়ে আসে।

২। এবার পেঁয়াজের আস্তরটি ফেলে দিন। পেঁয়াজের আস্তর এবং গোঁড়ার অংশে এনজাইম বেশি থাকে।

৩। তারপর পেঁয়াজটি দুই ভাগ করে নিন।

৪। এখন আপনার প্রয়োজনমত আকৃতি করে পেঁয়াজ কেটে নিন।

এই পদ্ধতিটিকে যদি ঝামেলার মনে হয় তবে আরও একটি সহজ উপায়ের কথা জেনে রাখুন। পেঁয়াজ কাটার আগে পেঁয়াজগুলো প্রায় আধা ঘন্টা ফ্রিজে রেখে দিন। তারপর ধুয়ে কাটুন। এতে পেঁয়াজের এনজাইমগুলো নষ্ট হয়ে যাবে। আর আপনারও চোখে পানি আসবে না।