মেইন ম্যেনু

পেশাজীবীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ইফতার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ মঙ্গলবার তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতাদের সম্মানে এক ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেন।

বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও শিক্ষক, বিভিন্ন সংবাদপত্র, সংবাদ সংস্থা ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক, চিকিৎসক, প্রকৌশলী, আইনজীবী, ব্যবসায়ী, বৃদ্ধিজীবী, কবি, লেখক, গায়ক ও ক্রীড়াব্যক্তিত্ব ইফতার মাহফিলে যোগ দেন।

প্রধানমন্ত্রী অতিথিদের সঙ্গে কুশলবিনিময় করেন এবং তাঁদের খোঁজ-খবর নেন।

ইফতারের আগে দেশের অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

এ সময় ১৫ আগস্ট শাহাদাতবরণকারী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের অন্যান্য সদস্য, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ব্যক্তিবর্গের রুহের মাগফিরাত এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘজীবন ও সুস্বাস্থ্য কামনা করা হয়।

বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম আলহাজ মাওলানা এহসানুল হক মোনাজাত পরিচালনা করেন।

ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান, ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম, ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী, বিশিষ্ট লেখিকা সেলিনা হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মুহাম্মদ শফিউল হক, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, বিচারপতি মেজবাহউদ্দিন, অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিন, এফবিসিসিআই সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ, রায়করাজ রাজ্জাক ও কৃষিবিদ আমিরুল ইসলাম অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন।

ইফতার মাহফিলে পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ, সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ), কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন-বাংলাদেশ, ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স-বাংলাদেশ, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে), জাতীয় প্রেসক্লাব, আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, এফবিসিসিআই, বিজিএমইএ এবং সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।