মেইন ম্যেনু

পেশি বাড়াতে যা করবেন

পেশি বাড়াতে সঠিক খাবার-দাবার প্রয়োজন। বিশেষজ্ঞরা বলেন, ব্যায়ামের পরপর যে খাবার খাবেন, সেটি পেশির বৃদ্ধির জন্য গুরুত্বপূর্ণ। তাই এই খাবার পেশির বৃদ্ধির জন্য উপযুক্ত হওয়া চাই।

খাদ্যতালিকায় প্রোটিনের অভাব হলে পেশির শক্তি ব্যাহত হয় এবং বৃদ্ধি কম হয়। এ ছাড়া শরীরে চর্বি হবে না, তবে পেশি ঠিকই বৃদ্ধি পাবে—এমন খাবার নির্বাচন করা উচিত।

জীবনধারাবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের স্বাস্থ্য বিভাগে প্রকাশিত হয়েছে এ-সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন।

  • ডিমের মধ্যে রয়েছে অ্যামাইনো এসিড ও প্রোটিন। এ জন্য এটি দ্রুত পেশি বাড়াতে কাজ করে। এর মধ্যে রয়েছে আয়রন, জিংক, ক্যালসিয়াম ইত্যাদি। এ ছাড়া ভিটামিন বি, কে, ই, এ রয়েছে ডিমের ভেতর।
  • দুধের মধ্যে রয়েছে প্রোটিন। এ ছাড়া এর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন ও মিনারেল। পেশিকে ভালো রাখতে সাহায্য করে। ব্যায়ামের পর দুধ খাওয়া ভালো।
  • কাঠবাদামের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন ই, প্রোটিন ও আঁশ। পেশি ভালোভাবে তৈরির জন্য এই বিষয়গুলো খুব জরুরি।
  • পেশির বৃদ্ধির জন্য মুরগির বুকের মাংস খুব উপকারী খাবার। মুরগির মাংসের মধ্যে রয়েছে জিংক, সেলেনিয়াম, আয়রন, নায়াসিন ও ভিটামিন বি৬।
  • শরীর সুস্থ রাখতে পালংশাক খুব উপকারী। সম্প্রতি গবেষণায় বলা হয়, পেশির মাংস বাড়াতে পালংশাক বেশ ভালো উপাদান। এর মধ্যে ক্যালসিয়াম রয়েছে।
  • মিষ্টিআলুর মধ্যে রয়েছে পটাশিয়াম। রয়েছে আঁশ, ভিটামিন। ব্যায়ামের পর মিষ্টিআলু খাওয়া ভালো বলে জানান বিশেষজ্ঞরা।