মেইন ম্যেনু

পোরশায় ৭ বছরের কন্যা শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার হলেও আটক হয়নি ধর্ষক

সালাউদ্দীন আহম্মেদ, পোরশা (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ নওগাঁর পোরশায় ৭বছরের এক কন্যা শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার হলেও আটক হয়নি ধর্ষক। ঘটনার পাঁচ দিন পার হয়ে গেলেও পুলিশ এখনো তাকে আটক করতে পারেনি। এঘটনায় এলাকাবাসী তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। পাশাপাশি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আসামীকে আইনের আওতায় নিয়ে কঠিন শান্তির মুখোমুখি করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহীনির প্রতি আহ্বান জানান তারা।

এদিকে মামলার তদন্তে থাকা কর্মকর্তা সাব-ইন্সপেক্টর আব্দুল হাই জানিয়েছেন,- ধর্ষক এনদাদুল (মাস্তান) দূরে কোথাও গা ঢাকা দিয়েছে। তাছাড়া ঘটনাটি ফাঁকা মাঠের মধ্যে হওয়ায় শোনা যাচ্ছে, আসামী বাংলাদেশ সীমান্ত পার হয়ে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তারপরও আমরা আশা করছি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হব।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার উপজেলার নিতপুর পুরাতন পাড়ায় এই জঘন্য ঘটনাটি ঘটে। এলাকাবাসী জানায়, নিতপুর শিতলী ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের মোঃ জুল্লু মিঞার ছেলে মোঃ এনদাদুল হক ওরফে মাস্তান (৪২), নিতপুর পুরাতন পাড়া গ্রামের মৃতঃ ফারাজুল ইসলামের মেয়ে মোসাঃ ফারজানা (৭)কে বিকেল বেলা খেলার মাঠ থেকে চকলেট দেওয়ার নাম করে ডেকে নিয়ে নিতপুর বি,জি,বি ক্যাম্পের দক্ষিন-পশ্চিমে ফাঁকা মাঠে শিশুটির উপর নির্যাতন চালায়।

এমতাবস্থায় এলাকাবাসী খবর পেয়ে সেখানে ছুটে গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এলাকার লোকজন ক্ষুব্ধ হয়ে ধর্ষক এনদাদুল ওরফে মাস্তানকে ধরার চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হয়। থানায় তাৎক্ষনিক মহিলা ও পুরুষ দু‘জন কনষ্টেবল দ্বারা শিশুটির চিকিৎসার জন্য নওগাঁ জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় ফারজানার মা মোসাঃ হাসিনা বেগম বাদী হয়ে থানায় একটি ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ৭/, ২৯/০৩/১৬ইং।