মেইন ম্যেনু

পোশাক খাতের ক্ষতি করতেই বিদেশিদের হত্যা

তৈরি পোশাক খাতসহ দেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতে গভীর চক্রান্ত চলছে বলে মন্তব্য করছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

গুলশানে হামলা চালিয়ে তৈরি পোশাক ক্রেতা এবং মেট্রোরেলের পরামর্শকদের হত্যা সে বার্তাই দেয় জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশি-বিদেশি চক্র নৃশংস এসব হত্যায় মদদ দিচ্ছে।

রোববার (১০ জুলাই) ঈদের ছুটির পর প্রথম কার্যদিবসে সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও অধীনস্ত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, কর্মচারিদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় তিনি এ কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দেশজুড়ে ব্লগার, ইমাম, পুরোহিত, ভিক্ষুর পাশাপাশি বিদেশিদের হত্যা করে এই চক্রান্তকারীরা বোঝাতে চাইছে, বাংলাদেশ অস্থিতিশীল, তাদের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য করো না, উন্নয়নে সহযোগিতা দিও না।’

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘জনগণ ঐক্যবদ্ধ হলে উন্নয়ন ও অগ্রগতিবিরোধী এ অপশক্তি পরাস্ত হবে।’

শিক্ষার্থীদের বিষয়ে সব বিশ্ববিদ্যালয় ‍কর্তৃপক্ষকে সচেষ্ট থাকারও পরাপর্শ দেন বাণিজ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘পড়ানোর পাশাপাশি তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক বিবেচিত হলে অভিভাবকদের অবহিত রাখতে হবে।’

গুলশান ও শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানের পাশের জঙ্গি হামলার পর বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি নেত্রী একদিনে ঐক্যের কথা বলছেন, অন্যদিকে বলছেন নিরপেক্ষ নির্বাচন না হলে এ ধরনের জঙ্গি হামলা বন্ধ হবে না।’

একটি বড় রাজনৈতিক দলের নেত্রী হিসেবে বেগম জিয়ার ওই বক্তব্য উস্কানিমূলক, অগ্রহণযোগ্য বলেও মন্তব্য করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।