মেইন ম্যেনু

পোশাক যত ছোট, খাবারে ছাড় তত!

চীনের কয়েকটি রেস্তোরাঁ নারীদের খাবারে নানা রকমের ছাড় দেয়। তবে এ ক্ষেত্রে নারীদের স্বাস্থ্য, সুন্দর চেহারা এবং ওজন বেশি থাকলেই কেবল খাবারে নানা রকমের ছাড় মেলে। চীনের হেনান প্রদেশের জেনজু এলাকার একটি রেস্তোরাঁ সুন্দরী নারীদের জন্য খাবারে অনেক ছাড় দিয়েছিল। এবার দেশটির অপর একটি রেস্তোরাঁ ঘোষণা দিয়েছে, যে নারী যত ছোট স্কার্ট পরবেন তিনি খাবারে তত বেশি ছাড় পাবেন। চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে ‘হট-পট’ নামের রেস্তোরাঁ খাবারের ছাড়ের ক্ষেত্রে এমনই ঘোষণা দিয়েছে।

এনডিটিভির এক খবরে বলা হয়েছে, চীনের হট-পট নামের একটি রেস্তোরাঁ নারীদের জন্য ঘোষণা দিয়ে বলেছে, যাদের স্কার্টের মাপ হাঁটু থেকে ওপরের দিকে যত ছোট হবে, খাবারে তাঁরা ততই ছাড় পাবেন।

রেস্তোরাঁটির মালিকপক্ষ এক ঘোষণায় বলেছেন, স্কার্টের মাপ হাঁটু থেকে ওপরের দিকে ৩৩ সেন্টিমিটার (১২ ইঞ্চি) ওপর পর্যন্ত থাকলে ওই রেস্তোরাঁয় খাবারে সবচেয়ে বেশি পরিমাণে অর্থাৎ ৯০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় মিলবে। আর যারা হাঁটুর ওপরে ৮ সেন্টিমিটার পর্যন্ত স্কার্ট পরবেন তারা খাবারে মাত্র ২০ শতাংশ ছাড় পাবেন।

ওই রেস্তোরাঁর একজন মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা আমাদের হট-পট রেস্তোরাঁর প্রচারের জন্য এমন ঘোষণা দিয়েছি। নারীরা সাধারণত যেকোনোভাবে তাদের পা দেখাতে পছন্দ করেন এবং স্কার্ট পরে তাঁরা পথচারীদের দৃষ্টি আকর্ষণের পাশাপাশি অনেক কম দামে রেস্তোরাঁয় খাবার খেতে পারবেন।’

চীনের রেস্তোরাঁগুলো নারীদের খাবারের ক্ষেত্রে ছাড় দিয়ে যেসব ঘোষণা দেয় তা নিয়ে নানা মহলে সমালোচনা আছে। এর আগেও রেস্তোরাঁয় এমন ঘোষণা নিয়ে চীনে বিতর্ক ছড়িয়ে পড়েছিল। যেমন, কেউ বেশি সুন্দরী নারী হিসেবে অনেক নম্বর পেলে বিনে পয়সায় রেস্তোরাঁয় খাবার পাবেন। প্লাস্টিক সার্জারি করেন এমন একদল প্যানেল চিকিৎসক, কারা সেরা সুন্দরী হবেন তা নির্বাচন করতেন। এ ছাড়াও সেসব নারীর ওজন বেশি তাঁদের জন্য একটি রেস্তোরাঁর খাবারে ছাড় দেওয়া হয়েছিল। অর্থাৎ যে নারীর যত বেশি ওজন সেই নারী খাবারে তত বেশি ছাড় পেতেন।

খাবারে ছাড় দেওয়ার এমন সব রীতি নিয়ে সমালোচনা থাকলেও কয়েকটি রেস্তোরাঁর কর্তৃপক্ষ মনে করছেন, এতে তাঁদের বিক্রি-বাট্টাও অনেক বেড়ে যায়।