মেইন ম্যেনু

‘প্যারিসে হামলা বিশ্লেষকদের কাছে বিস্ময়কর ঘটনা নয়’

প্যারিসে বড় ধরণের সন্ত্রাসী হামলায় অন্তত ১২০ জন নিহত হবার পর এ হামলায় নিন্দা জানিয়েছেন বিশ্বনেতারা।

হামলাটিকে ‘বেসামরিক নাগরিকদের আতংকিত করার একটি ঘৃণ্য চেষ্টা’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন বলেছেন, প্যারিস হামলার ঘটনায় তিনি ‘বিস্মিত’ এবং ‘ফ্রান্সকে সাহায্য করার জন্য তারা যতটা সম্ভব তারা করবেন’।

তবে হামলার আকার ধারণা করতে না পারলেও এধরণের একটি হামলা বিশ্লেষকদের কাছে একেবারেই অপ্রত্যাশিত ছিল বলে মনে করেন না বিশ্লেষক আলী রীয়াজ।

বিবিসির সাথে এক সাক্ষাৎকারে যুক্তরাষ্ট্রের ইলিনয় স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আলী রীয়াজ বলেন, “ফ্রান্সে এখন ইউরোপের সবচেয়ে বড় মুসলিম জনগোষ্ঠি বাস করে এবং একইসাথে ইউরোপের সবচেয়ে বড় ইহুদী জনগোষ্ঠিও ফ্রান্সে। গত কিছুদিন যাবত সেখানে আমরা এন্টি সেমিটিজম এবং ইসলামোফোবিয়া বাড়তে দেখেছি, সেইসাথে যোগ হয়েছে রাজনীতিতে দক্ষিণপন্থীদের উত্থান এবং শরণার্থী সংকট। এই সব মিলিয়ে সেখানে একটি অস্থির মিশ্রণ তৈরি হয়েছে।”

বারাক ওবামা তার বক্তব্যে প্যারিস হামলাকে একটি ‘পরিকল্পিত হামলা’ হিসেবে মন্তব্য করেছেন।

আলী রীয়াজ বলেন, হামলাটি যেভাবে হয়েছে তাতে এটি বিচ্ছিন্ন বলে মনে হয় না এবং হামলা সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতেই মি. ওবামা এ মন্তব্য করে থাকতে পারেন।

এই হামলার সাথে যুক্ত ব্যাক্তিদের সনাক্ত এবং তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্র এবং ফ্রান্স এখন আরো ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করবে বলে ধারণা করছেন অধ্যাপক রীয়াজ।বিবিসিবাংলা