মেইন ম্যেনু

প্রকল্প পাসে তোড়জোড় : পরিকল্পনামন্ত্রীকে কাদেরের ডিও লেটার

সাড়ে ১২ কোটি টাকা ব্যয় সংবলিত প্রস্তাবিত সাসেক সড়ক সংযোগ (এলেঙ্গা-হাটিকামরুল-রংপুর) মহাসড়কে ৪ লেনে উন্নিতকরণ প্রকল্প অনুমোদনে তোড়জোড় শুরু করেছে সেতু মন্ত্রণালয়। প্রকল্পটি দ্রুত অনুমোদনে ব্যবস্থা গ্রহণে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালকে আধা সরকারিপত্র (ডিও লেটার) পাঠিয়েছেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এর আগে এই প্রকল্পটি চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) পরিকল্পনা কমিশনে পাঠায় সড়ক বিভাগ। এতে প্রকল্প বাস্তবায়নে ২১টি গাড়ি ক্রয়ের প্রস্তাব করা হয়। যা কমিশনের পিইসি সভায় তা বাতিল করে মাত্র ২টি গাড়ির সংস্থান রাখা হয়। এ অবস্থায় ওই গাড়িগুলো সংযুক্ত রেখেই প্রকল্প অনুমোদনের আর্জি জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

পরিকল্পনা কমিশনে পাঠানো ডিওতে বলা হয়েছে, ১২ হাজার ৪৯১ কোটি টাকা ব্যয় সংবলিত এ প্রকল্পের মাধ্যমে ১২ জেলাকে জাতীয় সড়কের সঙ্গে যুক্ত করা হবে। মোট দৈর্ঘ্য হবে ১৯০ দশমিক ৪০ কিলোমিটার। সড়কের দুইপাশে যানবাহনের নির্বিঘ্ন যাতায়াতে রাস্তা ৪ লেনে উন্নিত করা হবে। এছাড়া ৩টি ফ্লাইওভার, ১টি রেলওয়ে অভারপাস, ৩২টি সেতু, ২৬১টি কালভার্ট, ১১টি পথচারি অভারপাস, ৩৯টি আন্ডারপাস নির্মাণ করা হবে।

Letter20160427063913

চিঠিতে ২১টি গাড়ি ক্রয়ের কম্পোনেন্ট যুক্ত করার জোর দাবি জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, এসব কাজ সম্পাদনে গাড়িগুলো ক্রয়ের বিকল্প নেই। এজন্য আলাদাভাবে ২১ জন ড্রাইভার নিয়োগ দেয়া হবে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ১১টি জিপ (অত্যাধুনিক), যা ১ জন প্রকল্প পরিচালক, ১ জন উপ-পরিচালক, ৩ জন অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক, ৬ জন প্রকল্প ব্যবস্থাপককে বরাদ্দ দেয়া হবে। এর বাইরে ৯টি পিকআপ যা সহকারী উপ-প্রকল্প পরিচালক ১টি, বাকি ৮টি প্রকল্প ব্যবস্থাপকের জন্য। এছাড়া সার্বক্ষণিক ব্যবহারের জন্যে একটি মাইক্রোবাস কেনার কথা উল্লেখ করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, প্রকল্পটি গুরুত্বপূর্ণ বিধায় যাচাই-বাছাই চলছে। এসব কার্যক্রম শেষ হলে নিয়ম অনুসারে প্রকল্প অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হবে।