মেইন ম্যেনু

প্রকাশ্য রাস্তায় সাহসী দুই কিশোরী শায়েস্থা করলেন দুই ইভটিজারকে

রাজধানীর মিরপুরে মঙ্গলবার দুপুরে উত্যক্তকারীদের রুখে দিয়েছেন সাদিয়া ও শম্পা। সম্প্রতি যারা বেগম ফজিলাতুন্নেসা আন্তর্জাতিক মার্শাল আর্ট টুর্নামেন্টে স্বর্ণপদক লাভ করেছেন। স্কুল ও কলেজগামী ছাত্রীদের উত্যক্তের প্রতিবাদে দুই বখাটেকে হাতেনাতে ধরে রাস্তায় বেদম মারধর করেন তারা। পরে স্থানীয়রা বখাটেদের ছাড়িয়ে নেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, দুপুরে মিরপুর ১০ নম্বর বি ব্লকে আলামিন ও মিরাজ নামে দুই বখাটে যুবক রাস্তায় দাঁড়িয়ে স্কুল-কলেজগামী ছাত্রীদের উত্যক্ত করছিল। এক পর্যায়ে তারা রাস্তার পাশে থাকা ঈদ কার্ডের দোকানের ভেতর বসে ছাত্রীদের উত্যক্ত করতে থাকে। সাদিয়া ও শম্পাকেও উত্যক্ত করার সঙ্গে সঙ্গে আলামিন আর মিরাজকে বেদম মারধর শুরু করেন দুই কিশোরী। আরও কয়েকজন কিশোরী তাদের সঙ্গে যোগ দেন। সাহসী দুই কিশোরীর এমন ঘটনায় দুই বখাটে ভড়কে যান। আশপাশের দোকানি ও স্থানীয়রা বিষয়টি দেখার পর দুই কিশোরকে তাদের হাত থেকে ছাড়িয়ে নেন।

শম্পা মিরপুর গার্লস আইডিয়াল ল্যাবরেটরি ইনস্টিটিউটের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ও সাদিয়া জার্মান টেকনিক্যালে নবম শ্রেণিতে পড়াশোনা করেন। শম্পা ও সাদিয়া গণমাধ্যমকে জানান, উত্যক্তের পরপর হাতেনাতে ঘটনাস্থলেই দুই বখাটেকে শায়েস্তা করেন তারা।