মেইন ম্যেনু

প্রতিবন্ধকতাকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে ব্যাট হাতে চার, ছয় মেরে চলেছে আমির!

গত কয়েকদিন ধরেই নিউজ চ্যানেল, খবরের কাগজ সর্বত্র লেখা হচ্ছে কাশ্মীরের কথা। তবে সে কথায় কোনো ভালো খবর নেই। যুদ্ধের খবর, সেনাদের শহীদ হওয়ার খবর। তবে এইসব খারাপ খবরের মাঝে আমির হুসেন কাশ্মীরের একটি ভালো খবর। যে ঝিলামের জলে একদিকে বয়ে যাচ্ছে ভারতীয় সেনাদের রক্ত সেই ঝিলামের তীরেই লড়াই করে এক টুকরো স্বপ্ন সত্যি করছে আমির হুসেন। স্বপ্ন তার ক্রিকেটার হওয়ার। কিন্তু ক্রিকেটার হওয়ার স্বপ্ন তো অনেকেই দেখে তবে আমির আলাদা কোথায়? আসলে আমির আলাদা নয়। আলাদা আমিরের অবিশ্বাস্য মনের জোড়। দুই হাত নেই, তবুও প্রতিবন্ধকতাকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে ক্রিকেট ব্যাট হাতে চার, ছয় মেরে চলেছে আমির।

যে ব্যাট ধরার জন্য এত লড়াই সেই ব্যাটই অবশ্য আমিরের প্রতিবন্ধকতার কারণ। আমিরের বয়স তখন বছর তিনেক মতো। খেলতে খেলতে বাড়ির পাশের এক ক্রিকেট ব্যাট তৈরির কারখানায় কাঠ চেলাই মেশিনে হাত দুটো কাটা পড়ে যায়। কৃষক বাবার পক্ষে আমিরকে হাত ফিরিয়ে দোয়া সম্ভব হয়নি। কিন্তু আমিরকে তিনি দিয়েছিলেন অসম্ভব মনের জোর। আর সেই মনের জোড় দিয়েই আমির এখন কাঁধ ও গলার মাঝে ব্যাট ধরে ক্রিকাট খেলে। পা দিয়ে লেগ স্পিন করেন, ক্যাচ ধরেন, ফিল্ডিংও করেন। আমির এখন রাজ্য প্যারা ক্রিকেট দলে খেলেন। স্বপ্ন গুরু শচীন টেন্ডুলকারের মতো ‘মেন ইন ব্লু’য়ে খেলার।