মেইন ম্যেনু

প্রতিমা বিসর্জন আজ

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দূর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা প্রায় শেষ। বিজয়া শোভাযাত্রার মাধ্যমে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে পাঁচ দিনব্যাপী শারদীয় দুর্গোৎসবের শেষ হচ্ছে আজ। বাবার বাড়ি থেকে দেবী দুর্গার এখন স্বামীগৃহে ফেরার পালা।

বৃহস্পতিবার বিজয়া দশমীর পূজা ও দর্পণ বিসর্জন সম্পন্ন হলেও আজ শুক্রবার বিকেল চারটায় ঢাকেশ্বরী মন্দির এলাকা থেকে বিজয়া শোভাযাত্রা বের করা হবে। নগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শোভাযাত্রা শেষ হবে পুরান ঢাকার ওয়াইজঘাটে। এরপর বুড়িগঙ্গায় মায়ের প্রতিমা বিসর্জন হবে।

বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদ প্রচলিত পঞ্জিকামতে পূজা করলেও রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনে পূজা অনুষ্ঠিত হয় বিশুদ্ধ সিদ্ধান্তমতে। সে অনুসারে গতকাল ঢাকা রামকৃষ্ণ মিশনে শুধু মহানবমী পূজা অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ছয়টায় নবমী পূজা শুরু হয়ে শেষ হয় বেলা দেড়টার দিকে।

এই পূজামণ্ডপে আজ সকাল সাতটায় বিজয়া দশমী পূজা শুরু হবে। সকাল সাড়ে আটটায় হবে দর্পণ বা প্রতীকী বিজর্সন।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে নবমী পূজায় দেবী দুর্গার কাছে যজ্ঞের মাধ্যমে আহুতি দেন ভক্তরা। পরে শুরু হয় বিজয়া দশমীর আনুষ্ঠানিকতা।রাজধানীর মন্ডপগুলোতে সকাল ৭টা ২৩ মিনিটে শুরু হয় মহানবমী কল্পারম্ভ ও বিহিত পূজা। দেবী দুর্গার কাছে আহুতি দেন ভক্তরা।

সকাল ৯টা ৫৭ মিনিটে শুরু হয় দশমী বিহিত পূজা ও দর্পণ বিসর্জন। ভক্তরা স্বর্গ থেকে পৃথিবীতে আসা দেবীকে নানা উপাচারে আরাধনা করে অনাচার আর সংকট মোচন এবং বিশ্ববাসীর শান্তি প্রার্থনা করেন। বেদনাবিধূর বিদায়লগ্নে দেবীকে তেল, সিঁদুর ও পান দিয়ে মিষ্টিমুখ করানো হয়।

পঞ্জিকামতে এবার দেবী দুর্গা পৃথিবীতে এসেছেন ঘোড়ায় চড়ে। আর স্বর্গে স্বামীগৃহে ফিরবেন পালকিতে চড়ে। যার ফলাফল শস্যহানি ও দুর্ভোগ।

বৃহস্পতিবার সব মণ্ডপে না হলেও ঢাকেশ্বরী কেন্দ্রীয় মণ্ডপে বিজয়া দশমীর অংশ হিসেবে সধবা নারীরা প্রথমে মা দুর্গার পায়ে সিঁদুর দিয়ে তাঁদের ভক্তি জানান। পরে নিজেদের মধ্যে সিঁদুর খেলা করে আনন্দ করেন। বেলা একটার দিকে ঢাকেশ্বরী মন্দিরের দর্শনার্থীদের মধ্যে প্রসাদ বিতরণ করা হয়।

এদিকে রাজধানীসহ সারা দেশের প্রতিটি পূজামণ্ডপের নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ, আনসার, বিজিবি, র‌্যাবসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছে। পুলিশ ও র‌্যাবের পাশাপাশি প্রায় প্রতিটি মণ্ডপে স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী দায়িত্ব পালন করছে। ঢাকেশ্বরী মন্দিরে মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটির উদ্যোগে কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণকক্ষ খোলা হয়েছে।

ঢাকা মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির তথ্য অনুযায়ী, এ বছর সারা দেশে ২৯ হাজার ৭৪টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা হচ্ছে। এর মধ্যে রাজধানী ঢাকায় মণ্ডপের সংখ্যা ২২২টি।