মেইন ম্যেনু

প্রথম দিনেই ১৩ উইকেট পতন

অস্ট্রেলিয়া-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ডমিনিকা টেস্টের প্রথম দিনে দাপট দেখালেন বোলাররা। প্রথম দিনেই দুই দলের ১৩ উইকেটের পতন ঘটেছে। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে চা বিরতির আগে মাত্র ১৪৮ রানে অলআউট ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জবাবে দিন শেষে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৮৫ রান। স্টিভেন স্মিথ ১৭ ও অভিষিক্ত অ্যাডাম ভোজেস ২০ রানে অপরাজিত রয়েছেন। এখনও ৬৩ রানে পিছিয়ে আছেন অসিরা।

বুধবার চা বিরতির আগে ১৪৮ রানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংস গুটিয়ে দিয়ে শেষ সেশনে ব্যাটিংয়ে নামে অস্ট্রেলিয়া। তবে শুরুটা ভালো হয়নি সফরকারীদের। দলীয় ১৩ রানে জেরম টেলরের বাউন্সারে জারমেইন ব্ল্যাকউডকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। ক্রিস রজার্সের বদলে ওপেনিংয়ে নামা শন মার্শও ফেরেন দলীয় ৩৮ রানে। জেসন হোল্ডারের বলে ড্যারেন ব্রাভোকে ক্যাচ দেন ১৯ রান করা মার্শ।

এরপর দলীয় ৬১ রানে তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরেন মাইকেল ক্লার্ক। ক্যারিবিয়ান স্পিনার দেবেন্দ্র বিশুর বলে উইকেটের পেছনে দিনেশ রামদিনের গ্লাভসবন্দি হন এই অসি অধিনায়ক। ২৮ বলে ১৮ রান করেন ক্লার্ক। এরপর স্মিথ ও ভোজেস ২৪ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে দিনের খেলা শেষ করেন।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নামা ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুটা খুব একটা খারাপ ছিল না। লাঞ্চ বিরতির আগে ৩ উইকেটে ৮৫ রান তোলে স্বাগতিকরা। তবে লাঞ্চ বিরতির পরই চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে তারা। দ্বিতীয় সেশনে আর মাত্র ৬৩ রান যোগ করতেই প্রথম ইনিংস গুটিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ক্যারিবিয়ানরা শেষ ৮৫ রানেই ৯ উইকেট হারায়!

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন শাই হোপ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২১ রান আসে জেসন হোল্ডারের ব্যাট থেকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস গুঁড়িয়ে দিতে ৩টি করে উইকেট নেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার মিচেল জনসন ও জস হ্যাজেলউড। দুটি উইকেট জমা পড়ে আরেক পেসার মিচেল স্টার্কের ঝুলিতে।