মেইন ম্যেনু

হিলারি-ট্রাম্প বিতর্ক : পরস্পরকে আক্রমণ-উপহাস

বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে প্রচারণা শেষে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থীদের মধ্যে প্রথম বাকযুদ্ধ হয়েছে। নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত টিভি বিতর্কে মুখোমুখি বাকযুদ্ধে অংশ নেন হিলারি ক্লিনটন এবং ডোনাল্ড ট্রাম্প। মঙ্গলবার সকাল সাতটায় ৯০ মিনিটের এই বিতর্ক শুরু হয়। বিতর্কে সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন এনবিসি টিভির লেস্টর হল্ট।

নভেম্বরের নির্বাচনে জনগণ কেন তাদের ভোট দেবে এই বিষয়ে কথা বলতেই বাকযুদ্ধে অংশ নেন দুই প্রার্থী। ধারণা করা হচ্ছে, সরাসরি সম্প্রচারিত এই টিভি বিতর্ক মার্কিন ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি দর্শক টানবে।

রাজনীতির মাঠে নবাগত ট্রাম্প প্রায়শই কৌশলকে কম গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। অপরদিকে হিলারি সবচেয়ে অভিজ্ঞ, সবচেয়ে পরীক্ষিত প্রার্থী, এভাবেই তাঁকে দেশের জনগণের কাছে পরিচিত করানো হয়েছে। তা সত্ত্বেও দেশটির ৫৫ শতাংশ মানুষ তাঁর বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলে।

হিলারি ও ট্রাম্প নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণে প্রায় দেড় বছর নির্বাচনী প্রচারণায় কাটিয়েছেন। তাঁরা অসংখ্য বিতর্ক ও নির্বাচনী সভায় অংশ নিয়েছেন।

ধারণা করা হচ্ছে, ১৯৮০ সালে ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার ও রিপাবলিক প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগ্যানের বিতর্ক যে পরিমাণ টেলিভিশন দর্শক টেনেছিল, সেই রেকর্ডও ভেঙ্গে গেছে মঙ্গলবারের এই বিতর্কে।

এরই মধ্যে বেসরকারি বিভিন্ন জড়িপে দুই প্রার্থীকেই নির্বাচনী দৌড়ে সমানভাবে এগিয়ে থাকতে দেখা গেছে। তবে মুখোমুখি বিতর্ক সমর্থনের এই পাল্লা কোনো একজনের দিকে ঝুঁকতে পারে বলেই মনে করছেন অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষক।

আগামী ৮ নভেম্বরের নির্বাচনকে সামনে রেখে দুই প্রার্থীর মধ্যে ৩ দফা বিতর্ক অনুষ্ঠিত হবে। বিতর্কে নিজেদের পরিকল্পনার কথা দেশবাসীর কাছে তুলে ধরবেন হিলারি ও ট্রাম্প।



« (পূর্বের সংবাদ)