মেইন ম্যেনু

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের কারণ ব্যাখ্যা সোহেল তাজের

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নতুন করে সক্রিয় হওয়ার ব্যাপারে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজীম আহমেদ সোহেল তাজকে নিয়ে যে গুঞ্জন চলছিল তা উড়িয়ে দিয়েছেন সোহেল তাজ নিজেই। গত শনিবার রাতে দুই বোন সিমিন হোসেন রিমি ও মাহজাবিন আহমেদ মিমিকে নিয়ে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সোহেল তাজ সাক্ষাত করতে গেলে তার রাজনীতিতে ফেরা নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়।

সোমবার নিজের ফেসবুকে এক পোস্টে তিনি লিখেছেন, “বন্ধু আর শুভানুধ্যায়ীদের অবগতির জন্য বলছি, আমার রাজনীতিতে ফেরার যে খবর বেরিয়েছে তা পুরোপুরি অসত্য”।

taj 1_99828_1.png

বাংলাদেশ সরকারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর তাজউদ্দীন আহমদের ছেলে সোহেল তাজ চারদলীয় জোট সরকার আমলে রাজপথে আন্দোলনে সক্রিয় থেকে নজর কাড়েন।

২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জয়ী হয়ে সরকার গঠন করলে তাকে দেওয়া হয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। ওই বছরই মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করে সোহেল তাজ দেশের বাইরে চলে যান। পরে সংসদ সদস্য পদ থেকেও পদত্যাগ করেন তিনি। তার সংসদীয় এলাকা গাজীপুরের কাপাসিয়ার সাংসদ এখন বোন সিমিন হোসেন রিমি।

taj 2_99828_2.png

সোহেল তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘তাজউদ্দীন আহমদ ও সৈয়দা জোহরা তাজউদ্দীন স্মৃতি ফাউন্ডেশন’ প্রতিষ্ঠার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে জানাতেই সেদিন তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা গণভবনে গিয়েছিলেন।

তিনি লিখেছেন, ‘আমাদের মনে হয়েছে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অমূল্য পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা এই ফাউন্ডেশনকে কার্যকর করতে সহায়ক হবে। তিনি কেবল বাংলাদেশের জনগণের অভিভাবক নন, বঙ্গবন্ধু এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনার রক্ষক। কজেই আমাদের এই উদ্যোগে আমরা তার সহযোগিতা ও আশির্বাদ চাইব- সেটাই স্বাভাবিক।’