মেইন ম্যেনু

প্রধানমন্ত্রী দশবার ভেবে সিদ্ধান্ত নেন : কৃষিমন্ত্রী

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী কোনো কাজ করার আগে দশবার ভাবেন। দশবার ভেবে যখন সিদ্ধান্ত নেন, তখন কেউ তাকে টলাতে পারে না।

আজ রবিবার বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে ‘জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে খাদ্য এবং কৃষিও বদলাবে’ শীর্ষক সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিরল একটি গুণ হলো কয়েকজন লোকের বিবৃতি বা কথাবার্তায় কুঁকড়ে যান না। তাদের কথায় কখনো পিছিয়ে যান না।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, দেশের মানুষ নিজেকে বদলেছে, বদলেছে কৃষিকে। খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের জন্য আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

তিনি বলেন, শুধু খাদ্য উৎপাদন নয়, খাদ্য ব্যবস্থাপনায় দক্ষতার জন্য খাদ্য মন্ত্রণালয়ও দারুণ কাজ করছে।

তিনি বলেন, সরকারকে দুরবস্থায় ফেলে তামাশা দেখার লোকের অভাব নেই। তবে সরকারকে খাদে ফেলার চেষ্টা করা হলেও তা সফল হয়নি।

তিনি বলেন, বিদেশ থেকে খাবার কিনে বিদেশিদের ভর্তুকি দেওয়ার চেয়ে নিজের দেশের কৃষককে ভর্তুকি দেওয়া উচিত।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ফার্মগেটের বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল মিলনায়তনে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারের আগে বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে খাদ্য মেলার উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, মতিয়া চৌধুরী ও খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।

সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব মঈন উদ্দীন আবদুল্লাহ। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এম এ সাত্তার মণ্ডল।

সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, খাদ্য ও কৃষি সংস্থার আবাসিক প্রতিনিধি মাইক রবসন, কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মকবুল হোসেন প্রমুখ বক্তব্য দেন।